+

৬ গিনেজ রেকর্ডের মালিক মাগুরার স্বপ্নবাজ ফয়সালের গল্প,করতে চান ২৫টিরও বেশি রেকর্ড,চান পৃষ্ঠপোষকতা

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ১৯ দিন ১ ঘন্টা ৫২ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 1750
...

মাগুরা প্রতিনিধিঃ বড় হয়ে কেউ ডাক্তার, কেউ ইঞ্জিনিয়ার, কেউ ব্যারিস্টার, কেউবা ম্যাজিস্ট্রেট হতে চায় না কেন? কিন্তু ছোটবেলা সবাই কমবেশি খেলাধুলা করে কাটিয়েছেন ঠিকই। আর খেলাধুলা করতে গিয়ে, দুরন্তপনা শৈশবে বাড়ির মুরব্বিদের চোখরাঙানি খাইনি, এমন মানুষ খুব কমই আছে।

হ্যা গল্পের শুরুটা এখান থেকেই নিজের গড়া রেকর্ড ভেঙ্গে ৬ষ্ঠ বারের মতো ওয়ার্ল্ড গিনেস বুকে নাম লেখালেন মাগুরার তরুণ মাহামুদুল হাসান ফয়সাল। ‘মোস্ট ফুটবল আর্ম রোল’ ক্যাটাগরিতে মাত্র ৩০ সেকেন্ডে ৬৮ বার বাহুতে ফুটবল ঘুরিয়ে তিনি রেকর্ডটি গড়েন।

গিনেস কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইট বলছে, ‘দ্য মোস্ট ফুটবল আর্ম রোলস ইন থার্টি সেকেন্ডস’ ইভেন্টের রেকর্ডটি এখন মাহমুদুল হাসানের দখলে। গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর মাগুরার বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে ৩০ সেকেন্ডে ৬৮ বার ঘাড়ের ওপর বল ঘুরিয়ে তিনি এই রেকর্ড করেছেন।                                                      এর আগে ১৮ নভেম্বর তিনি ৩০ সেকেন্ডে ৬২ বার বাহুতে ফুটবল ঘুরিয়ে ৫ম বার ওয়ার্ল্ড গিনেস রেকর্ডটি করেন। সর্বশেষ গত ১৫ ডিসেম্বর তার ১৮ তম জন্মদিন ছিল । এ তরুণ নিজের গড়া সে রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন করে এ রেকর্ড করেন। গত ৯ এপ্রিল রাতে ওয়ার্ল্ড গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ তাকে নতুন রেকর্ডের স্বীকৃতি দিয়েছে বলে এ কথা জানান ফয়সাল।

এ ছাড়া আরও ৪টি গিনেস রেকর্ড রয়েছে এই তরুণের দখলে। যার মধ্যে রয়েছে এক মিনিটে সবচেয়ে বেশি বার ঘাড়ের ওপর ফুটবল (মোস্ট ফুটবল ‘সকার বল’ নেক থ্রো এন্ড ক্যাচেস ইন ওয়ান মিনিট) নাচিয়ে ও ধরে রেখে। এক মিনিটে ৬৬ বার ফুটবল ঘাড়ের ওপর ফুটবল নাচিয়ে। এছাড়া মোস্ট বাস্কেটবল নেক ক্যাচেস ইন ওয়ান মিনিট। এক মিনিটে দুই হাতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১৪৪ বার (মোস্ট বাস্কেটবল আর্ম রোল ইন ওয়ান মিনিট) বাস্কেটবল ঘুরিয়ে। ফয়সাল ফুটবল ফ্রি স্টাইলার প্রথম রেকর্ডটি গড়েন ২০১৮ সালে। সেই রেকর্ডটি ছিল মোস্ট ফুটবল আর্ম রোল ইন ওয়ান মিনিট ১৩৪ বার।

মাগুরা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের মেকাট্রনিক্স বিভাগে ডিপ্লোমা প্রকৌশলে ৫ম সেমিষ্টারে অধ্যায়নরত মাহামুদুল হাসানের বাড়ি সদর উপজেলার হাজিপুর গ্রামে। বাবা সোহেল রানা এক জন অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য। মা মঞ্জুয়ারা খানম একজন গৃহিণী।

ফুটবল ফ্রি স্টাইলার মাহামুদুল হাসানের সাথে কথা বলে জানা যায়, ইউটিউব ঘাঁটাঘাঁটি করে ফ্রিস্টাইলের নানান রকম কলাকৌশল রপ্ত করা শুরু করেন। কোন পেশাদারী প্রশিক্ষণ ছাড়াই এসব কীর্তি গড়েছেন তিনি। ছোটবেলা থেকেই তার খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ ছিল। ইচ্ছে ছিলো ক্রিকেটার হওয়ার। নানা প্রতিবন্ধকতায় তা পারেনি সে। এরপর শুরু করে ফুটবল নিয়ে বিভিন্ন খেলা। খেলতে খেলতেই সে ফুটবল নিয়ে নানা এক্সপেরিমেন্ট শুরু করে। তখনই মাথায় আসে বিভিন্ন কৌশল রপ্ত করে রেকর্ড গড়বার।

কথা প্রসঙ্গে ফয়সাল বলেন, খেলাধুলার আরো বিষয়ের মতো ফুটবল ও বাস্কেটবলের ফ্রিস্টাইলিংয়ে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা বাড়ুক। তখন অনেকেই আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে আরো স্বীকৃতি এনে দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে। দেশে ফ্রিস্টাইলিংয়ের ওপর প্রতিযোগিতার আয়োজন করাও জরুরি। এ ছাড়া যারা এটিকে পেশা হিসেবে নিতে চায়, সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোরও তাদের সহায়তায় এগিয়ে আসা দরকার। কারণ, কাজটা এত সহজ নয় বলে জনান নিজেই। তিনি বলেন, দৈনিক গড়ে পাঁচ থেকে সাত ঘণ্টা অনুশীলন করতে হয়। আমাদের দেশে ফ্রি স্টাইল তেমন জনপ্রিয় নয়। এ কারণে পৃষ্ঠপোষকতা তেমন একটা চোখে পড়ে না। আর পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়া বড় কিছু করা সম্ভব। ফয়সাল চান, ফ্রিস্টাইলিং ফুটবল ও বাস্কেটবলের যত ইভেন্ট আছে সবগুলোতে সাফল্য পেতে এবং গিনেস বুকে দেশের নাম সবচেয়ে বেশিবার লেখাতে চাই। ফয়সাল মাতৃভূমির লাল সবুজের পতাকা নিয়ে দাঁড়াতে চায় ফ্রিস্টাইলিংয়ে বিশ্বমঞ্চে। তিনি আরো বলেন, পড়াশোনার পাশাপাশি ফ্রিস্টাইলটা চালিয়ে যেতে চান। ২৫টির বেশি রেকর্ড গড়ে ওয়ার্ল্ড গিনেজ বুকে নাম লিখতে চাই। স্বপ্ন ফ্রিস্টাইলের মাধ্যমে বাংলাদেশের সুনাম কুড়ানোর ইচ্ছে আছে তার। এছাড়া যদি ভালো পৃষ্ঠপোষক এদিকে নজর দেয়। তাহলে দেশে প্রতিভাবান ফ্রিস্টাইলাররা উঠে আসবে বলে মনে করেন ফয়সাল।

হয়তো নতুন কোন বিশ্ব রেকর্ড অপেক্ষা করছে তার জন্য! ফয়সাল আগামী দুই বছরের মধ্যে নতুন নতুন রেকর্ড নিয়ে নিজেকে এবং দেশকে বিশ্বের বুকে তুলে ধরতে সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

ফয়সালের বাবা সোহেল রানা বলেন, ফয়সাল ছোটবেলা থেকেই খেলাধুলার প্রতি খুবই আগ্রহী। তবে এই রেকর্ডের জন্য সে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে। এমনকি ওর পড়াশোনার ক্ষতি হয়েছে। তারপরও আমি ওকে উৎসাহিত করেছি। আজ ওর সাফল্যে আমরা খুবই আনন্দিত।

মাগুরা জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম সরেজমিন বার্তাকে বলেন, মাগুরার তরুণ ফয়সালের রেকর্ড আমাদেরকে গর্বিত করেছে। ইতিমধ্যে তাকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমরা সহযোগিতা করেছি। ভবিষ্যতে যে কোনো ধরণের সহযোগিতা দিতে আমরা প্রস্তত।

...
Md. Shaharul Islam(SJB:E022)
Mobile : 01734457677

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
আল মামুন

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com , hr@sorejominbarta.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

Family LAB Hospital
সর্বশেষ সংবাদ