১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:৩৩

নারীকে বিবস্ত্র করে একি করল আকবর মোল্লা!

বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় ঝাড়ফুঁকের নামে এক নারীকে (৩০) বিবস্ত্র করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ভণ্ড কবিরাজের বিরুদ্ধে। এ ঘটনা জানাজানি হলে সোমবার অভিযুক্ত ভণ্ড কবিরাজ আকবর মোল্লা (৪৫) এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন।

ভুক্তভোগীর স্বজনদের অভিযোগ, গত মঙ্গলবার উপজেলার মধ্য ধামুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তবে এলাকার প্রভাবশালীদের হুমকির কারণে বিষয়টি প্রকাশ পায়নি। অভিযুক্ত আকবর মোল্লা মধ্য ধামুরা গ্রামের মৃত আজাহার মোল্লার ছেলে।

ধর্ষণের শিকার ওই নারীর স্বজনরা জানায়, ১০ বছর আগে শোলক ইউনিয়নের উত্তর ধামুরা গ্রামের ওই নারীর সঙ্গে তার চাচাতো ভাইয়ের বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে এক ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। ৫ বছর আগে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটে। দুই বছর আগে সন্তানকে দত্তক রেখে সৌদি আরবে পাড়ি জমান ওই নারী।

গত ২৩ আগস্ট দেশে ফিরে তিনি ধামুরা গ্রামে খালার বাড়িতে বসবাস শুরু করেন। হঠাৎ শারীরিক অসুস্থতা দেখা দিলে তিনি ডাক্তার ও কবিরাজের শরণাপন্ন হন। কিন্তু দিন দিন তার অবস্থার অবনতি ঘটলে একপর্যায়ে তিনি মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন।

এই সুযোগে ভণ্ড কবিরাজ আকবর মোল্লা ওই নারীকে সুস্থ করার কথা বলে ঝাড়ফুঁকের নামে প্রথমে গোসল করান। এরপর তার খালাকে কাঁচা হলুদ আনতে পাঠিয়ে ওই নারীকে ঘরে নিয়ে বিবস্ত্র করে ধর্ষণ করেন। কিছু সময় পর তার খালা ঘরে ঢুকে বিষয়টি দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করলে আকবর পালিয়ে যান।

তারা আরও জানান, এলাকার প্রভাবশালীরা আকবর মোল্লার পক্ষ নিয়ে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে। সোমবার বিষয়টি জানাজানি হলে আকবর মোল্লাকে খুঁজতে যায় স্থানীয়রা। তবে তাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি।

উজিরপুর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিশির কুমার পাল বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই, তবে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রকাশ :  সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮ ৫:১৬ পূর্বাহ্ণ