১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:১৩

চেতনায় চাটমোহরের বিনামুল্যে সাঁতার প্রশিক্ষণের সমাপনী

পাবনা প্রতিনিধি:
অভিভাবক-শিশুদের স্বতস্ফূর্তভাবে ব্যাপক অংশগ্রহণের মাধ্যমে পাবনার চাটমোহরে শুরু হওয়া বিনামুল্যে শিশুদের সাঁতার প্রশিক্ষণ বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে। ফেসবুক গ্রæপ ‘চেতনায় চাটমোহর’ পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যু রোধে চারদিনব্যাপী এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করে।
বৃহস্পতিবার বিকেলে সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শফিউল ইসলাম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি পাবনার সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল হামিদ মাস্টার, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাসাদুল ইসলাম হীরা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমার, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) তাপস কুমার পাল।
চেতনায় চাটমোহরের চেয়ারম্যান জেমান আসাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, চাটমোহর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক চলনবিলের সম্পাদক রকিবুর রহমান টুকুন, জেলা পরিষদের সদস্য হেলাল উদ্দিন, পিসিডি’র নির্বাহী পরিচালক শফিকুল ইসলাম, শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব পাবনা জেলা কো-অর্ডিনেটর রাহাত হোসেন পল্লব প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে সম্প্রতি চলনবিলে নৌকাডুবির পর ১৭ জনকে বাঁচাতে সাহায্যকারী কিশোর সুমন হোসেন ও শাহনাজ পারভীন সেদিনের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। এ সময় উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসন থেকে শাহনাজ পারভীনকে ৫ হাজার টাকা, বেসরকারি সংস্থা পিসিডি’র নির্বাহী পরিচালকের পক্ষ থেকে দুইজনকে দুই হাজার করে ৪ হাজার টাকা, উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসন থেকে দুইজনকে খাদ্য সামগ্রী দেয়া হয়। আর এর আগে গত ৫ সেপ্টেম্বর হান্ডিয়ালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উদ্ধারকাজে বীরত্বপূর্ণ অবদান রাখায় সুমন-শাহনাজ সহ চারজনকে দুই হাজার করে মোট ৮ হাজার টাকা প্রদান করেন। এছাড়াও রেড ক্রিসেন্টের তরফ থেকে কিছু উপহার সামগ্রী তুলে দেয়া হয়।
গত ৩ সেপ্টেম্বর থেকে এই প্রশিক্ষণ শুরু হয়। চারদিনে ৫ শতাধিক শিশুকে বিনামুল্যে সাঁতার প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। আর এই সাঁতার প্রশিক্ষণে সার্বিক সহযোগিতা করে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি পাবনা, চাটমোহর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এবং চাটমোহর উপজেলা প্রশাসন।
চেতনায় চাটমোহরের চেয়ারম্যান জেমান আসাদ জানান, শিশুদের পানি ভীতি কাটানো ও অভিভাবকদের সচেতন করার প্রয়াস হিসেবে এই সাঁতার প্রশিক্ষণের আয়োজন। সেইসাথে উপজেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, রেড ক্রিসেন্টসহ যারাই সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। আগামীতে এই সাঁতার প্রশিক্ষণ সাতদিন থেকে দশদিনব্যাপী আয়োজন করা হবে বলে জানান জেমান আসাদ।

প্রকাশ :সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮ ৭:৩৯ অপরাহ্ণ