১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:২০

দ্বিতীয় স্তরের টিউমার থেকে ক্যানসার

বয়স্কদের হাড়ে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে যে ধরনের টিউমার বেশি দেখা যায়, তার নাম সেকেন্ডারি টিউমার। প্রায় সব সময়ই এটি ক্যানসারে রূপ নেয়। কারণ এ টিউমার অস্থি বা হাড়ের নিজস্ব নয়, শরীরের অন্য কোথাও ক্যানসার হলে তা থেকে ছড়িয়ে এটি অস্থিতে চলে আসে। হাড়ের সেকেন্ডারি টিউমার মূলত ক্যানসারের বার্তা বহন করে। এটি আসে প্রাইমারি টিউমার থেকে

স্তন, ফুসফুস, প্রস্টেট গ্রন্থি, কিডনি এবং থাইরয়েডে গ্রন্থিতে ক্যানসার হলে তা সহজেই অস্থিতে ছড়িয়ে পড়ে। এ ছড়িয়ে পড়া ক্যানসারের বীজটি অস্থিতে যে টিউমার তৈরি করে, তার নাম সেকেন্ডারি বোন টিউমার বা মেটাস্টাটিক টিউমার। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে হাত এবং পায়ের হাড়ের ওপরের দিকে এ টিউমার হতে দেখা যায়। কোমড়ের হাড় এবং মেরুদ-ের হাড়েও এ টিউমার হতে পারে। এ টিউমার হলে রক্তে ক্যালসিয়ামের মাত্রা অনেক বেড়ে যেতে দেখা যায়।

হাড়ের টিউমার টের পেলে অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। তিনিই প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে রোগের উৎস, চিকিৎসার ধরনসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার কথা রোগীর পরিবারকে জানাবেন। প্রাইমারি টিউমারের উৎস নিশ্চিত করতে পারলে প্রথমে তার চিকিৎসা শুরু করতে হয়। প্রাইমারি রোগ ভালো হলে অথবা নিয়ন্ত্রণে এলে অস্থির টিউমারের চিকিৎসা শুরু করা হয়

লেখক : টিউমার ও ক্যানসার রোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান, মেডিক্যাল অনকোলজি বিভাগ, শহীদ সোহ্রাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল, শের-ই-বাংলানগর, ঢাকা

চেম্বার : আল-রাজি হাসপাতাল, ফার্মগেট, ঢাকা

০১৭৯৫৫৬৮২১৩, ০১৭৩২৪২৯৩৯০

প্রকাশ :সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৮ ৭:০১ পূর্বাহ্ণ