১৯শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং | ৭ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:২৭

হাটহাজারীতে আবারো অবৈধ কারখানার সন্ধান, আটক ১

মো.আলাউদ্দীনঃ
হাটহাজারীতে আবারো ভেজাল ভোজ্য তেল তৈরির অবৈধ কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.রুহুল আমিনের নেতৃত্বে শুক্রবার(১৪ ডিসেম্বর)গোপন সংবাদের ভিক্তিতে  অভিযান চালিয়ে উপজেলাধীন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ১ নম্বর দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের সাধুর পাহাড়ের পশ্চিমে একটি বাড়ীতে এ কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়।

সূত্রে জানা যায়, সন্ধান পাওয়া ভেজাল তেল তৈরির “ওলি অন অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ” নামের এ কারখানায় বাজারের একটি দামী ব্রান্ডের তেলের বোতলের স্টীকার নকল করে তাতে ‘নুর’ও ‘সানরাইজ’নাম লাগিয়ে নিম্নমানের পামওয়েল বোতলে ভরে তা দীর্ঘদিন ধরে বাজারজাত করে আসছিলো। এদিকে ভ্রাম্যমান আদালতের উপস্থিতি বুঝতে পেরে এ অবৈধ কারখানার মালিক গা ঢাকা দিলেও মো.সেলিম হাওলাদার (৪২) নামে ওই কারখানার এক কর্মকর্তাকে আটক করে। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত বিএসটিআই’র লাইসেন্স ছাড়া তৈরি করা এসব ভেজাল ভোজ্য সয়াবিন তেলের প্লাস্টিকের বোতল, স্টিকার, মেশিনসহ নানা সামগ্রী জব্দ করা হয়। অভিযান পরিচালনার সময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নিয়াজ মোর্শেদ, হাটহাজারী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক হাবিব সহ পুলিশের একটি টিম সাথে ছিল।

স্থানীয় সচেতন মহল জানান, দুর্বল এবং নাম মাত্র জরিমানা করার কারনেই ঐসব দুষ্টু ও লোভী ব্যবসায়ীরা বার বার এমন ২নাম্বারী করার সাহস পাচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.রুহুল আমি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান,পামওয়েল সয়াবিন বলে বিক্রি করা হচ্ছে। বিএসটিআই’র লাইসেন্স ছাড়াই লোগো ব্যবহার হচ্ছে,ভিটামিন এ সমৃদ্ধ না করেও কৌটার উপর স্টিাকারে লিখে রাখা এ সবি প্রতারণা এবং আইনের লংঘন।

উল্লেখ্য, গত ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ ইং সোমবার তৎকালিন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী (ভুমি) কমিশনার আরিফুল ইসলাম সরদার গোপন সংবাদের ভিক্তিতে অভিযান পরিচালনা করে হাটহাজারী সদরের এগারমাইল বনবিট পরীক্ষণ ফাঁড়ির ৩০ গজ দক্ষিনে উম্মুল কোরা মহিলা মাদরাসার সামনে চট্টগ্রাম-হাটহাজারী মহাসড়কের পুর্ব পাশে সড়ক ঘেঁষে খোলা তেল বোতলজাত করার একটি অবৈধ কারখানায় সন্ধান পেয়েছিলেন। তখন অভিযানে বিপুল পরিমানে নিন্মমানের খোলা ও বোতলজাত করা সয়াবিন ও সরিষার তেল এবং রুপসী,ডায়মন্ড,শাহীন নামক কোম্পানীর পুরানো ও নতুন অসংখ্য স্টিকার জব্দ এবং কারখানার মালিকে না পেয়ে কর্মচারী মনসুর (৬৫) ও মামুন (২০) নামের  ২ জনকে আটক করা হয়েছিল।

প্রকাশ :  ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮ ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ