১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:৪৫

ভোটের মাঠে নিখোঁজ ইলিয়াস আলীর স্ত্রী, ছেলে

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-২ আসনে নিখোঁজ বিএনপিনেতা ইলিয়াস আলীর স্ত্রী ও ছেলে উভয়ের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

গতকাল রোববার সিলেট জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা কাজী এমদাদুল হক ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা ও ছেলে ব্যারিস্টার আবরার ইলিয়াস অর্ণবের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন।

এ আসনে মোট ১২ জন প্রার্থীর মধ্যে তিনজনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়।

এদিকে বিএনপির পক্ষে প্রার্থী হিসেবে শেষ পর্যন্ত কে লড়বেন এখনো স্পষ্ট জানা না গেলেও দলীয় অভ্যন্তরীণ সূত্রের বরাতে বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানায়, ইলিয়াস-পত্নী লুনাই এ আসনে বিএনপির প্রার্থী হতে যাচ্ছেন।

তাহসিনা রুশদীর লুনা বলেন, ‘আমরা মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্রের চেষ্টা করা হয়েছিল। অবশেষে আমাদের (মা-ছেলের) মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।’ তবে ছেলে অর্ণব নয়, ভোটের মাঠে তিনিই থাকবেন বলে লুনা জানান।

২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়ে সিলেট-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন বিএনপিনেতা ইলিয়াস আলী। আশির দশকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালে ছাত্রদলের মাধ্যমে রাজনীতিতে আসেন তিনি। তৎকালীন স্বৈরাচারী শাসক হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আমলে ১৯৮৮ সালে রাজনৈতিক মামলায় তিনি সাত মাস জেলও খাটেন।

২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাজধানীর বনানী থেকে গাড়িচালক আনসার আলীসহ ‘নিখোঁজ’ হন ইলিয়াস আলী।  রাস্তায় পড়ে থাকা তাঁর গাড়ি উদ্ধার করে বনানী থানার পুলিশ। এখন পর্যন্ত তাঁদের সন্ধান দিতে পারেনি পুলিশ।

প্রকাশ :  ডিসেম্বর ৩, ২০১৮ ৬:৩১ পূর্বাহ্ণ