১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:৫৭

আমি লজ্জিত : শামীম ওসমান

বাংলাদেশ প্রতিদিন :

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে নৌকার হয়ে লড়তে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আসনটির বর্তমান সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান। গতকাল  দুপুর সাড়ে ৩টায় জেলা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেন।  এ সময় প্রতিক্রিয়ায় সাংবাদিকদের শামীম ওসমান বলেন, আজকের দিনটা আমার জন্য খুব লজ্জার। কারণ গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে আমার এক প্রবাসী বন্ধু ফোন দিয়ে অনেক কান্নাকাটি করেছে। আমার ওই বন্ধুর সামনে তার মাকে ধর্ষণ করা হয়েছিল ৭১ সালে। বাবাকে হত্যা করা হয়েছিল। এরপর সে দেশের বাইরে চলে যায়। আমি খুব লজ্জিত। কারণ গতকাল মঙ্গলবার আমার এক প্রবাসী বন্ধু আমাকে একটি প্রশ্ন করেছে। যে প্রশ্নের উত্তর আমি দিতে পারি নাই। শুধু আমি বলেছি আমি লজ্জা পাই আমার লজ্জা লাগে। রাজনীতি আজ কোন জায়গা পর্যন্ত পৌঁছেছে।

শামীম ওসমান বলেন, আমার অত্যন্ত শ্রদ্ধেয় আমি তাকে চাচা বলি ড. কামাল হোসেন সাহেব আমার বাবার সঙ্গে চলেছেন। আমরা তার জন্য জেল খেটেছি বহুবার। বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী সাহেব। আমি যখন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা আমার নেতা ছিলেন সুলতান মোহাম্মদ মনসুর সাহেব। রাজনীতি এ জায়গায় চলে গেছে। ওই  কামাল হোসেন ও কাদের সিদ্দিকীর মতো নেতারা আজ কী করছেন। আমি খুব কষ্ট পাই। আমার বন্ধু আমাকে বলেছে, আমার মাকে আমার চোখের সামনে ধর্ষণ করা হয়েছে। আমার বাবা নিজের জীবন দিয়েছে আমার সামনে। যখন সেই বন্ধু গতকাল পত্রিকায়  পড়েছে জামায়াতের ২৫ নেতাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে, সে কান্নায় ভেঙে পড়েছে। বলেছে, এত দিন ভাবতাম যে ঠিক আছে একজন দুর্নীতিবাজ তারেক রহমানের নির্বাচনে তারা গিয়েছে মানতে পেরেছিলাম। কিন্তু জামায়াত-শিবিরের নেতৃত্বে। ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য তারা যদি বদরুজ্জোদা চৌধুরীর সঙ্গে একটি জোট করতেন আমার কোনো আপত্তি ছিল না। সে চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে বলেছে, আমার মায়ের ধর্ষিতা হওয়ার আর কোনো মানে থাকল না। আমার বাবার মৃত্যুর আর কোনো দাম থাকল না। আমাকে সে জিজ্ঞাসা করেছে আমার মতামত কী? আমি শুধু বলেছি বন্ধুরে আমি লজ্জা পাই, আমার লজ্জা লাগে একজন রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচয় দিতে। ও আমার কাছে অনুরোধ করেছে আমার মাধ্যমে সাংবাদিকদের কাছে ওর কয়টি কথা পৌঁছে দিতে। সাংবাদিকদের কাছে সে অনুরোধ করেছে শহীদ পরিবারের ছেলে হিসেবে এই যে, সে এখনো আশা করে ওইসব নেতা (ড. কামাল ও বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী) জামায়াত-শিবিরের নেতৃত্বের পেছনে থেকে বাংলাদেশে এই দেউলিয়াত্ব ওনারা দেখাবেন না। ও সাংবাদিকদের কাছে হাতজোড় অনুরোধ করেছে সেই সব নেতাদের কাছে তার আশাটা পৌঁছে দিতে। তাই আমি আপনাদের কাছে পৌঁছে দিলাম। লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই— বিএনপির এ অভিযোগ নিয়ে শামীম ওসমান বলেন, আমার মনে হয় ওনারা কাউকে বিশ্বাস করতে পারছেন না। তবে আমি বিশ্বাস করি।  যাকে নেতৃত্বে দিলে বিএনপি দলটি গোছাতে পারবে  সে হলো বেগম জিয়ার সঙ্গে জেল খাটছেন গৃহভৃত্য ফাতেমা আপা।

প্রকাশ :  নভেম্বর ২৯, ২০১৮ ৫:৩১ পূর্বাহ্ণ