১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:১২

প্রেমের ফাঁদে ফেলে দশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ফেইস বুকে প্রেম, তারপর নাম্বার আদান প্রদান, এভাবেই শুরু হয় প্রেম। এক সময় প্রেমের সমাপ্তি। কিছু প্রেম আবার বিয়ে পর্যন্ত যায়। আবার কিছু প্রেম গড়ায় প্রতারনায়। বাংলাদেশে এমন অনেক মেয়েদের গ্রুপ আছে যারা প্রেমের ফাঁদে ফেলে অনেক ছেলেকে করেছে নিঃস্ব। আইন শৃংখলা বাহিনীর অভিযানে হর হামেসাই এমন চক্র ধরে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হয়। তবু থেমে থাকেনা এসব চক্রের কার্যক্রম। এমনি একটি ঘটনা ঘটে রাজধানীর খিলগাঁও থানাধীন উত্তর গোড়ান এলাকায়। এ এলাকার শচীন্দ্র নাথ বড়াই এর মেয়ে শ্রেয়া বড়াই গাজীপুর জেলার শ্রীপুর থানার মৃত রতন কুমার ধর এর ছেলে রমিত ধর এর সাথে প্রেমের নাটক করে দশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেছেন। যদিও তাদের প্রেমের সমাপ্তি হয় দীর্ঘ দেড় বছর আগে। কিন্তু মাঝে মাঝেই শ্রেয়া বড়াই রমিত ধরকে বিভিন্ন রকম হুমকি ধমকি দিত। গত এক মাস হুমকির মাত্রা বেড়ে যায়। পরবর্তীতে শ্রেয়া বড়াই রমিত ধরকে কৌশলে রাজধানীর কোতয়ালী থানার অর্নপূর্না হোটেলে ডাকিয়া নেয়। এবং বেশ কয়েক জন ছেলে এসে রমিত ধরে আটকে ফেলে আর ভয় ভীতি দেখিয়ে বিয়ে করার কথা বলে নতুবা দশ লক্ষ টাকা দিতে হবে বলে দাবী করে। রমিত ধর কৌশলে পরে দেখা করবে বলে পালিয়ে আসে। পরে কোতয়ালী থানায় একটা সাধারণ ডায়েরি করেন। ডায়েরি নং- ৭২০, তারিখ ১৯/১১/২০১৮ ইং। এবং পুরো বিষয়টি নিয়ে রাজধানীর খিলগাঁও থানায় আরেকটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এইরকম আরো ঘটনার সাথে সে জরিত ছিলেন বলে জানা গেছে । আইন শৃংখলা বাহিনীর মাধ্যমে এসব নারী চক্র গুলোকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি চায় সাধারণ মানুষ। যাতে করে পবিত্র প্রেমকে কেউ অপবিত্র না করতে পারে, আর আসহায় মানুষকে এসব চক্রের হাতে পড়ে নিঃস্ব না হতে হয়। চলবে।

প্রকাশ :  নভেম্বর ২৫, ২০১৮ ৬:৪৪ পূর্বাহ্ণ