১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:৩৭

হাটহাজারীতে আগুনে পুড়ে বসতঘর ছাই : ক্ষতির পরিমান প্রায় ২০ লাখ টাকা

::মো.আলাউদ্দীন,হাটহাজারী (চট্টগ্রাম)::
হাটহাজারীতে ভয়াবহ আগুনে বেশ কয়েকটি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে । শুক্রবার ২ নভেম্বর বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের জোবরা গ্রামস্থ মফিজ চেয়ারম্যান ঘাটার দক্ষিন পূর্ব পাশে ঈসমাইল হাজী বাড়ীর ইউনুচ মিয়ার বার আউলিয়া নামক কলোনিতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়,বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হলে মূহুর্তের মধ্যে তা ছড়িয়ে পড়ে ঐ কলোনির প্রায় ১১/১২ টি ভাড়া ঘর সম্পূর্ন পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে হাটহাজারী ফায়ার সার্ভিস দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে এনে আশ পাশের ঘর বাড়ি আগুন থেকে রক্ষা করেন। এ ঘটনায় প্রায় ১৮/২০ লক্ষাধীক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়ে থাকতে পারে বলে ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে।
অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেলেও অলৌকিক ভাবে পবিত্র কোরআন শরীফের সাদা অংশ ছাড়া কোরআনের একটি অক্ষরও পুড়েনি। এমন ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃস্টি হয়েছে।
ক্ষতিগ্রস্থদের দেখতে ছুটে যান, হাটহাজারী উপজেলা ইসলামিক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক জনাব সাইফুর রহমান সাগর পৌরসভা ইসলামিক ফ্রন্টের সভাপতি মাওলানা সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম,হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রসেনার অর্থ সম্পাদক ছাত্রনেতা কামাল হোসেন সিরাজী।
ঘটনার ব্যাপারে ইউপি সদস্য আলমগীর ভুট্টু জানান, অগ্নিকান্ডের স্বীকার পরিবারের সদস্যরা তাদের পরনের কাপড় ছাড়া কিছুই বের করতে পারেননি,ঘরের সবকিছুই আগুনে পুড়ে একেবারে ছাই হয়ে গেছে।
এদিকে খবর পেয়ে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মাদ রুহুল আমীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থদের সরকারি ভাবে সাহায্য করা হবে বলে জানান। এসময় উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা নিয়াজ মোরশেদ ইউএনও’র সাথে ছিলেন।
প্রকাশ :  নভেম্বর ২, ২০১৮ ৯:০৬ অপরাহ্ণ