১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:৪০

খুচরা আধুলিরা জাতীয় ঐক্য করেছে : প্রধানমন্ত্রী

গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে খুচরা আধুলিরা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘সেই কামাল হোসেন গং, তাঁর সঙ্গে জুটেছে আরো কিছু খুচরা আধুলি। ঐক্য করেছে।’

আজ রোববার মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ীতে আয়োজিত জনসভায় জাতীয় ঐক্য নিয়ে কথা বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলে নিজেই এখন দুর্নীতিবাজদের দলে ভিড়েছেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি কামাল হোসেন সাহেবকে বাহ্বা জানাই। যে তিনি আজকে ঐক্য করেছেন কার সাথে? তিনি বড় বড় কথা বলেন। দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলেন। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কথা বলেন। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কথা বলেন। আর যে বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসের সঙ্গে সম্পৃক্ত আজকে তাদের সাথে তিনি ঐক্য করেছেন।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বিএনপির নেতৃত্ব নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। শেখ হাসিনা বলেন, ‘আর ড. কামাল হোসেন নেতা মেনেছেন কাকে? খালেদা জিয়া জেলে যাওয়ার পর  বিএনপিতে কি একটা লোকও ছিল না? যে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হতে পারে? ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার সাজাপ্রাপ্ত এবং যে পলাতক হিসেবে রয়ে গেছে বিদেশে তাকেই বানিয়েছে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান। আর সে চেয়ারম্যানের অধীনে ড. কামাল হোসেন গং আজকে তাঁরা ঐক্য করেছেন।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘ওই তারেক জিয়া আজকে সাজাপ্রাপ্ত আসামি। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার হয়েছে। সেই বিচারে তাঁরা সাজা পেয়েছে। আমরা আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করি, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের বিচার করেছি। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করেছি এবং গ্রেনেড হামলারও বিচার আজকে হয়েছে। প্রত্যেকটা ঘটনা এমনকি বিডিআরে যে হত্যাকাণ্ড হলো, এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যে তারা জড়িত, এতে কোনো সন্দেহ নাই। নইলে খালেদা জিয়া কেন ক্যান্টনমেন্টের বাড়ি থেকে সকাল ৭টায় আন্ডারগ্রাউন্ডে চলে গেল, আর এক মাসের মধ্যে ক্যান্টনমেন্টের বাড়িতে ফেরে নাই। সেই জবাব তাকে দিতে হবে।’

এ সময় আওয়ামী লীগই দেশের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন করতে পারে বলে দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সবশেষে প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার জন্য আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষে নৌকা মার্কায় ভোট চান।

শিবচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শামসুদ্দিন খানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, মতিয়া চৌধুরী, ওবায়দুল কাদের, ফারুক খান, ডা. দিপু মনি প্রমুখ।

বিএনপি, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া, জেএসডি ও নাগরিক ঐক্যসহ বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নিয়ে গতকাল নতুন জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করা হয়। জোটের পক্ষ থেকে সাত দফা দাবি ও ১১ দফা লক্ষ্যও তুলে ধরা হয়েছে। নতুন জোটের আহ্বায়ক করা হয়েছে ড. কামাল হোসেনকে।

প্রকাশ :  অক্টোবর ১৫, ২০১৮ ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ