১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:৩৪

নিম্নচাপের প্রভাবে ভারি বর্ষণ ও নদ-নদীর পানি বাড়তে পারে

গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পশ্চিম এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপের প্রভাবে দেশের কিছু অঞ্চলে মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে এবং কোথাও কোথাও পানি আকস্মিক বৃদ্ধি পেতে পারে।

আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, মধ্যাঞ্চল, দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলসহ উপকূলীয় এলাকায় মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে যার ফলে এসব অঞ্চলের নদীগুলোর পানি আকস্মিক বৃদ্ধি পেতে পারে।

আজ শনিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৪টি পানির সমতল স্টেশনের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী সব কয়টি প্রধান নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

দেশের বিভিন্ন নদ-নদীর ৯৪টি পানি সমতল স্টেশনের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী ৪৩টি পয়েন্টে পানি বৃদ্ধি ও ৩৪টির হ্রাস পেয়েছে।

নদ-নদীর পরিস্থিতি সম্পর্কে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ জানানো হয়েছে, আটটি পয়েন্টে পানি অপরিবর্তিত রয়েছে এবং ৯টি পয়েন্টের কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি এবং একটি পয়েন্টের গেজ স্টেশন বন্ধ আছে, আটটি পয়েন্টের গেজ পাঠ পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদ-নদীগুলোর পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে যা আগামী ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। গঙ্গা-পদ্মা নদীগুলোর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে যা আগামী ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

অন্যদিকে আবহাওয়ার এক সতর্কবার্তায় বলা হয়, ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণের প্রভাবে চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভূমিধ্স হতে পারে।

আজ দুপুর ১২টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারি (৪৪-৪৮ মিলিমিটার) ভারি বর্ষণ হতে পারে।

প্রকাশ :  অক্টোবর ১৩, ২০১৮ ১২:৪৬ অপরাহ্ণ