১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:৫৮

পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্যান্টিন ম্যানেজারকে ছাত্রলীগের মারধর!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিজয় একাত্তর হলের ক্যান্টিনে খাওয়ার পর পাওনা টাকা চাওয়ায় ব্যবস্থাপককে (ম্যানেজার) ছাত্রলীগকর্মীরা মারধর করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে বিজয় একাত্তর হলের ক্যান্টিন ব্যবস্থাপক রিফাতকে মারধর করা হয়। অভিযোগ রয়েছে, মারধরের ঘটনায় নেতৃত্ব দিয়েছেন হলের ছাত্রলীগকর্মী তানভীর আহমেদ। তিনি প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

এ ব্যাপারে ক্যান্টিন ম্যানেজার রিফাত বলেন, ‘দুপুরে ক্যান্টিনে খেতে আসেন ছাত্রলীগের কর্মী তানভীর। তাঁর বিল আসে ২০০ টাকা। কিন্তু তিনি ১৩০ টাকা দিয়ে বাকি টাকা দিতে অস্বীকার করেন। আমি বাকি ৭০ টাকা চাইলে তিনি হুমকি-ধমকি দিয়ে চলে যান।’

‘২০ মিনিট পর তানভীর হল থেকে ২০-২৫ জনকে নিয়ে এসে আমাকে তুলে পাশের একটি কক্ষে নিয়ে যান। সেখানে মেঝেতে ফেলে আমাকে মারধর করা হয়। অনবরত লাথি, ঘুষির ফলে শরীর থেকে রক্ত বের হয়ে যায়’, অভিযোগ করেন রিফাত।

হলের শিক্ষার্থীরা জানায়, এ ঘটনায় জড়িত তানভীরসহ অন্যরা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইনের অনুসারী। মারধর শেষে হল ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবু ইউনুস বিষয়টি মীমাংসা করতে আসেন।

পরে ইউনুস এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘হলের প্রথম বর্ষের ছেলেরা ক্যান্টিন ম্যানেজারকে মারধর করেছে শুনে আমি সেখানে যাই। বিষয়টি মীমাংসা করে দেই।’

ইউনুস আরো জানান, মারধরে তাঁর এক কর্মীকে জড়ানো হয়েছে। তবে মারধরে অংশ নেওয়া অধিকাংশই উত্তরবঙ্গের (রংপুর) গ্রুপের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

ইউনুছের বিরুদ্ধেও হলে ফাও খাওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিজয় একাত্তর হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ জে এম শফিউল আলম ভূঁইয়া বলেন, ‘আমি ঘটনাটি শুনেছি। হলের হাউজ টিউটরকে তদন্ত করতে বলেছি। আজকে বিষয়টি আমরা দেখব।

প্রকাশ :  অক্টোবর ১৩, ২০১৮ ৭:২৭ পূর্বাহ্ণ