১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:৫৯

হেফাজত আমীরের প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন

:: মো.আলাউদ্দীন ::
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,জাতীয় সংসদের স্পিকার,শিক্ষামন্ত্রী ও সকল সংসদ সদস্যদেরকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশের আমির এবং কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাক ও আল-হাইয়াতুল উলয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়ার চেয়ারম্যান আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসকে মার্স্টাসের (স্নাতকোত্তর ডিগ্রি) সমমর্যাদা দিয়ে স্বীকৃতির বিল জাতীয় সংসদে পাস করায় বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর এ অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানান তিনি।

এদিকে দাওরায়ে হাদিসকে মার্স্টাসের(স্নাতকোত্তর ডিগ্রি)সমমর্যাদা দিয়ে স্বীকৃতির বিল জাতীয় সংসদে পাস করায় চট্টগ্রাম জেলা বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার (২০সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার দিকে একটি শোকরানা মিছিলও করা হয় ।

‘কওমি শিক্ষাব্যবস্থার স্বীকৃতি দেশের লাখো আলেম-ছাত্রসমাজের প্রাণের দাবি ছিল। দীর্ঘদিন যাবৎ আমরা এ জন্য চেষ্টা করে আসছি। জাতীয় সংসদে সর্বসম্মতিতে বিলটি পাস হওয়ায় আমাদের দাবি পূর্ণতা পেল। আগামী প্রজন্মের পথচলা আরও সুগম হলো।’ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে শাহ আহমদ শফী বলেন উপরোক্ত কথাগুলে বলেন। বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, ‘কওমি শিক্ষাব্যবস্থার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসকে মার্স্টাসের (স্নাতকোত্তর ডিগ্রি) সমমর্যাদা দেয়ায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ ও আরবি সাহিত্যে দুই বিষয়ের মাস্টার্সের মর্যাদা পাবে দাওরায়ে হাদিস। ফলে কওমি শিক্ষার্থীদের খেদমতের পরিধি বৃদ্ধি পেল। আমাদের বিশ্বাস, এর মাধ্যমে সমাজে-দেশে দুর্নীতি, অনিয়ম, সুদ-ঘুষের প্রচলন হ্রাস পাবে।’

‘সবচেয়ে আনন্দের বিষয় হলো আমাদের সব শর্ত মেনে দারুল উলুম দেওবন্দের মূলনীতি অনুসারে দেশের ওলামায়ে কেরাম ও আমরা দায়িত্বশীলেরা যেভাবে চেয়েছিলাম, ঠিক সেভাবেই স্বীকৃতি পেয়েছি। এতে কওমি মাদ্রাসার স্বকিয়তা, ঐতিহ্য ও ভাবমূর্তিতে কোনো আঘাত আসবে না বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন।

উক্ত শোকরানা মিছিলের আগে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন,মাওঃ আনাস মাদানী,মাওঃ মীর ইদ্রিস, মাওঃ হাবিবুল হক নদভী মাওঃ নুরুল ইসলাম জদিদ মাওঃ শফীউল আলম, মাওঃ এনায়েত উল্লাহ,মাওঃ ইবরাহীম খলিল, মাওঃ আলমগীর মাসুদ সহ আরো অনেকে। বক্তব্য শেষে শোকরানা মিছিলটি ডাক বাংলো চত্বর থেকে শুরু হয়ে হাটহাজারী সদরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় মাদরাসার প্রধান গেইটের সামনে গিয়ে মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

উল্লেখ্য,২০১৭ সালের ১১ এপ্রিল কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্সের (স্নাতকোত্তর ডিগ্রি) সমমর্যাদা ঘোষণা করেন। পরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করে।

প্রকাশ :  সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৮ ৪:৫৯ অপরাহ্ণ