+

করোনা বিধ্বস্ত যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত ৩০ লাখ ছাড়াল

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ২ দিন ১৮ ঘন্টা ২৮ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 690
...

 

ক`রোনাভাইরাস মহা`মারিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হিসেবে আগেই উঠে এসেছিল যুক্তরাষ্ট্রের নাম। এবার প্রথম দেশ হিসেবে আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়াল দেশটিতে। তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলের চেয়ে রোগীর সংখ্যায় প্রায় দ্বিগুণ এগিয়ে যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়া আর কোনও দেশ তাদের ধারেকাছেও নেই।জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্যমতে,


যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত মোট ক`রোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩০ লাখ ৯ হাজার ৬১১ জন। মারা গেছেন ১ লাখ ৩১ হাজার ৫৯৪ জন। আর আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন অন্তত ৯ লাখ ৩৬ হাজার মানুষ।মার্কিন অঙ্গরাজ্যগুলোর মধ্যে করোনায় সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি হয়েছে নিউইয়র্কে। সেখানে অন্তত ৩২ হাজার ২৪৩ জনের প্রাণ কেড়েছে এই ভাইরাস।

এরপর নিউজার্সিতে ১৫ হাজার ২৮১ জন, ম্যাসাচুসেটসে ৮ হাজার ২১৩ জন, ইলিনয়েসে ৭ হাজার ২৭৩ জন মারা গেছেন করোনায়। গত কয়েকদিন থেকেই যুক্তরাষ্ট্রে অনেকটা লাগামহীনভাবে বাড়ছে ক`রোনাভাইরাসের সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৬০ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন; যা এ যাবৎকালের একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। একই সময় প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১ হাজার ১১৪ জন।

এর আগে দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ ৫৫ হাজার ২২০ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছিলেন গত ২ জুলাই। যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে করোনা সংক্রমণের কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠেছে ক্যালিফোর্নিয়া এবং টেক্সাস। এ দু’টি অঙ্গরাজ্যের প্রতিটিতে দৈনিক ১০ হাজারের বেশি মানুষ করোনা পজিটিভ শনাক্ত হচ্ছেন।আরও পড়ুন সাধারণভাবেই আমরা জানি যে একবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে সুস্থ হয়ে উঠতে উঠতেই দেহে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়ে যায় ফলে দেহ করোনাভাইরাস প্রতিরোধী ওঠে।

সোজা কথায়, আপনার দেহে এ্যান্টিবডি থাকলেই আপনি করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করতে পারবেন। এর আগে নয়। কিন্তু নতুন এক জরিপে আভাস পাওয়া গেছে যে, যাদের দেহে করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি পাওয়া যায়নি তাদের দেহেও এই ভাইরাস প্রতিরোধের কিছুটা ক্ষমতা থাকেসুইডেনের কারোলিনস্কা ইন্সটিটিউটের একটি জরিপের পর গবেষকরা বলছেন, এই প্রতিরোধ ক্ষমতা আসে ‘টি-সেল’ নামে রক্তে থাকা এক ধরণের কোষ থেকে। এর কাজ কোন দেহকোষে সংক্রমণ হলেই তাকে আক্রমণ করে ধ্বংস করা।

কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ক্ষমতা নিয়ে করা গবেষণায় এতদিন বেশি মনোযোগ দেয়া হয়েছে অ্যান্টিবডির দিকেই। কিন্তু এখন এর বাইরেও অনেক বিষয় নিয়ে গবেষণা হচ্ছে।অধ্যাপক মার্কাস বাগার্ট বলেন, অ্যান্টিবডি হচ্ছে ইংরেজি ওয়াই অক্ষরের মতো দেখতে একটা প্রোটিন যা ঠিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়ে একটা লক্ষ্যবস্তু ধ্বংস করার মতো করেই কাজ করে।করোনাভাইরাস মানুষের দেহকোষে ঢোকার আগেই এই অ্যান্টিবডি ভাইরাসের সাথে আটকে গিয়ে তাকে নিষ্ক্রিয় করে ফেলে।

...
MD. Shajalal Rana(SJB:E078)
Mobile : 01881715240

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com , thana.sorejomin@gmail.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

সর্বশেষ সংবাদ