গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত অনলাইন নিবন্ধন নাম্বার ৬৮

টি আই সার্জেন্টকে ম্যানেজ করে বহদ্দারহাটে প্রকাশ্যে চলছে চাঁদাবাজি জমজমাট বানিজ্যিক।

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ১৮ দিন ৯ ঘন্টা ২৩ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 620
...

রিপোর্টার মোহাম্মদ রিয়াজ আহমেদ। চট্টগ্রামের বহদ্দারহাট এলাকায় মাহিন্দা ও ম্যাকজিমা গাড়ি পার্কিং করে টাকার বিনিময়ে অবৈধ সিএনজি-টেম্পো স্টেশনে ঘন্টার পর ঘন্টা যানজট সৃষ্টি করে প্রকাশ্যে চলছে চাঁদাবাজি। ২৭ জুন রবিবার দুপুর ১২টার সময় বহদ্দারহাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায় চাঁদাবাজির এই দৃশ্য। চাঁদাবাজির ব্যাপারে ঐএলাকার কয়েকজন জনসাধারণ জাতীয় দৈনিক সরেজমিন পত্রিকা কে বলেন,বহদ্দারহাট এলাকায় যানজটমুক্ত করতে অবৈধ স্টেশন উচ্ছেদ অভিযান শুরু করলেও কয়েক ঘন্টা যেতে না যেতে আবার সেই আগের মত,সিএনজি-টেম্পো স্টেশনের মত রাস্তা দখল করে আসছে এখানকার হকাররা। তিনি বলেন,প্রকাশ্যে চলছে চাঁদাবাজি বাড়ছে জনদুর্ভোগ দেখার কেউ নেই এ যেন জোর যার মুলুক তার,মাসোহারা দিয়েই চলছে,বহদ্দারহাটে প্রায় ১ হাজারও বেশি গ্রাম সি.এন.জি, টিকটিকি (বরতাকিয়া) ও ম্যাকজিমা,এই সব লাইনের ৯০ শতাংশ গাড়ীর কোন বৈধ কাগজপত্র নেই। প্রতি মাসে প্রতিটি গাড়ি থেকে ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা এবং প্রতিদিন প্রতি একটি গাড়ি থেকে নেওয়া হয় ৩০ টাকা থেকে ৭০ টাকা,এই বহদ্দারহাটটি যেন একটা চাঁদাবাজির হাট। সংবাদকর্মীরা গভির ভাবে অনুসন্ধান করলে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নেপথ্যে রয়েছে স্থানীয় প্রভাবশালী সিন্ডিকেটের রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও সহ ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা,এই সব নিয়ন্ত্রণ করছেন ১৪৪১এর মালিক সমিতির সভাপতি মোজাহের ও শ্রমিক ইউনিয়ন ১৪৪১ এর সাধারণ সম্পাদক হারুন,অন্যদিকে মহানগরীতে অনুমোদনপ্রাপ্ত গাড়িগুলোও নানাভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্ত মালিক সমিতির নেতারা। চাঁদাবাজির ব্যাপারে লাইনম্যান মিজান ১৪৪১ এর সাধারণ সম্পাদক সাবু ও আমান উল্লাহ মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি গণমাধ্যমকর্মীকে বলেন , আমরা ৩০টাকা করে চাঁদা নিতাছি আমরা ৫০০শত টাকা বেতনের চাকরি করি লাইন থেকে চাঁদা তোলে মালিক সমিতির সভাপতি মোজাহের ও শ্রমিক ইউনিয়ন ১৪৪১ সাধারণ সম্পাদক হারুনকে দিয়ে দেই। তিনি আর ও বলেন, এখানে ৯০ শতাংশ গাড়ির কোন কাগজ নেই, এখানে বৈধ থেকে অবৈধ গাড়ির সংখ্যা বেশি। সার্জেনকে দিতে হয় ৫০০ টাকা করে, তাহলে আর সমস্যা হয় না,কয়েকটা গাড়ি ধরলেও পরে ছেড়ে দেয় , কাজ করলে দৈনিক ৫০০ টাকা করে দেয় আমাকে, বাকি সব মালিক সমিতির সভাপতি মোজাহের ও শ্রমিক ইউনিয়ন ১৪৪১ সাধারণ সম্পাদক হারুনকে দিতে হয় সব টাকা। বহদ্দারহাট পুলিশ বক্সের টিআই উত্তম এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমরা প্রতিদিন ৫/৭ অবৈধ গাড়ি ধরে মামলা দিচ্ছি এবং টু করছি, বহদ্দারহাট এলাকায় যানজটমুক্ত রাখতে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছি। এতো বড় এরিয়াতে সার্জেন একজন কাজ করতে খুবেই কষ্ট হয় মাঝে মাঝে আমাদের থানার সাহায্য নিতে হয়। তিনি আরও বলেন,চাঁদাবাজির বিষয়টি আমি জানি না,তবে রাস্তার উপরে যেসকল গাড়ী রং পার্কিং করে সেই সব গাড়ী ধরে সাথে সাথে মামলা দিয়ে যাচ্ছি আমরা,তবে কোথাও থেকে কোন টাকা পয়সা আমরা নিচ্ছি না। তিনি আরও বলেন,গাড়ি থেক চাঁদা তোলা সম্পন্ন অবৈধ,রাস্তায় সিএনজি-টেম্পো স্টেশন অবৈধ,এই সব উচ্ছেদের জন্য আমরা প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে যাচ্ছি। রাস্তার উপর দোকানপাট গুলো উচ্ছেদ করলেও কয়েক ঘন্টা পর আবার ও বসে যায়,যারা চাঁদাবাজি করে তাদেরকে আমার কাছে ধরে নিয়ে আসুন আমি তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব বলে জানান টিআই উত্তম। চাঁদাবাজির প্রথম পর্ব এবং দ্বিতীয় পর্বের জন্য চোঁখ রাখুন

...
Shahin Ahmed
01719068386

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
আল মামুন

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

Family LAB Hospital
সর্বশেষ সংবাদ