+

শার্শা গোগা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে। মেম্বার বাবুল

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ৬ দিন ০ ঘন্টা ১৪ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 935
...

প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর :

যশোর শার্শা উপজেলার গোগা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মনগড়া মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন গল্প সাজিয়েছে একুই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মেম্বর বাবুল, তার অভিযোগ মাদকের টাকা ভাগ পায়নি বলে চেয়ারম্যান রশিদ ও নিকটাত্মীয়েরা  প্রকাশ্যে চড় কিলঘুষি মেরে তাকে আহত করেছে। 

 এ ঘটনায় সরেজমিনে  খোজ নিয়ে জানা গেছে  হরিচন্দপুর ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বর বাবুল গত এক বছরে গোগা ইউনিয়নের ৩ ওয়ার্ডরে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে অভিনব্য কৌশল করে গ্রামের দারিদ্র ৩০জনের কাছ থেকে ১১লক্ষ,১৪হাজার টাকা নেয়।অভিযোগের মধ্যে রয়েছে,রাস্থা দেবার কথা বলে অর্থ নেয়া,তালাক প্রাপ্ত মহিলাদের ভরণ পোষণের টাকা হাতিয়ে নেওয়া, পর তাদেরকে পাওনা টাকা না দেওয়ায় তারা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি বরাবর পাওনা টাকার লিখিত অভিযোগ করে। লিখিত অভিযোগের  ভিত্তিতে সভাপতি মেম্বার কে  পাওনাদারদের টাকা দেওয়ার জন্য বলেন।  কিন্তু মেম্বার বাবুল কর্ণপাত না করায়, অভিযোগ পত্র চেয়ারম্যানের নিকট হস্তান্তর করে।  ওয়ার্ডের  সভাপতি, এসমস্থ অভিযোগগুলো  চেয়ারম্যান যাচাই-বাছাই শেষে, মেম্বরকে নিয়ে শালিস বসলে সে টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে লিখিত দেয়।কিন্তু নির্দিষ্ট সময় পার হলেও  মেম্বার ক্ষতিগ্রস্তদের টাকা না দেওয়ায়।এরই জেরে মঙ্গবার সকালে স্থানীয় গোগা বাজারে চেয়ারম্যানের নিকট অভিযোগ কারিরা আসলে, চেয়ারম্যান মেম্বারকে ফোনে ডাকলে তিনি এসে অভিযোগ কারিদের উপর চড়াও হলে চেয়ারম্যান বাধা দিতে, কথা কাটাকাটি হয় এবং মেম্বার জনসম্মুখে চেয়ারম্যানকে গালিগালাজ করলে স্থানীয় জনতা মেম্বারের উপর চড়াও হয়ে চড় কিল ঘুষি মারে।

এবিষয়ে চেয়ারম্যান জানান,আমার ও ছেলের বিরুদ্ধে যে মাদকের টাকা পাওনা চাওয়াকে কেন্দ্র মারধর করা হয়েছে সেটা মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন, আমাকে বিভ্রান্তো করা এবং পাওনাদারের টাকা না দেয়ার জন্য একটা কৌশল করছে মেম্বর।সে তার ওয়ার্ডে অসাহয় পুরুষ ও মহিলাদের কাছ থেকে  ১১লক্ষ ১৪হাজার টাকা নিয়েছে।যার লিখিত অভিযোগ ইউনিয়ানে জমা আছে ।এ এসমস্থ টাকার মিমাংসা ইউনিয়ন পরিষদে যাতে না হয় সে কারণে আমার নামে মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে মেম্বার বাবুল।

 ৩নং ওয়ার্ড পর্যায়ে  সভাপতি শোয়েদ আলী বলেন,বাবুল মেম্বর গ্রামের মানুষের কাছ থেকে বিভিন্ন সময় প্রতারণা করে টাকা নিয়েছে।গ্রামবাসী আমার কাছে লিখিত অভিযোগ করলে গ্রামে গণ্যমাণ্য ব্যাক্তিদের নিয়ে শালিস বসলে সে দোষীসাবস্থ হয়।সে টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে অঙ্গিকার নামায় স্বাক্ষর করে।কিন্তু টাকা দেওয়ার  সময় হলেও সে পরিশোধ করে না। আরো বলে আমার নামে থানায় মামলা করো ইউনিয়ানে বিচার দাও এবং সে অভিযোগ কারিদের বাড়িতে গিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। বাবুল, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে যে মাদকের টাকা নিয়ে এই ঝামেলার কথা বলছে সেটা মিথ্যা মনগড়া ও ভিত্তিহীন।অসহায় গ্রামের মানুষের পাওনা টাকা ফিরেয়ে না দেওয়ার জন্য মিথ্যা অপবাদ দেওয়া হচ্ছে। 

এ বিষয়ে মেম্বার বাবুলকে  বাড়িতে না পেয়ে তার ব্যবহৃত ০১৯৮৬৬৫৬৮৯৮ নম্বারে ফোন দিলে সংযোগ পাওয়া যায় নাই।

...
MD. ZAHANGIR ALAM(SJB:E014)
Mobile : 01714590443

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক
আল মামুন
01868974512

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com , thana.sorejomin@gmail.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

Family LAB Hospital
সর্বশেষ সংবাদ