ঢাকা জেলা জজ আদালতে দেওয়ানী মামলার নিষ্পত্তির হার শতভাগ

news-details
আইন-আদালত

মোস্তফাকামাল:  ঢাকা জেলা জজ আদালতে মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনে ত্রৈমাসিক জুডিসিয়াল করফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার ঢাকা জেলার মাননীয় জেলা ও দায়রা জজ মো. হেলাল চৌধুরী এর সভাপতিত্বে উক্ত কর্মশালায় ঢাকা জেলার জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, ঢাকা জেলার পুলিশ সুপারসহ বিচার ব্যবস্থার সাথে জড়িত ডিসি প্রসিকিউশন, র‌্যাব কর্মকর্তা, কারা কর্তৃপক্ষ, বিজ্ঞ আইনজীবী নেতৃবৃন্দ, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর এর কর্মকর্তা, চিকিৎসক সহ আরো অনেক এজেন্সির কর্মকর্তা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায়ে অত্যন্ত ফলপ্রসু আলোচনা করেন।

মাননীয় সভাপতি ও ঢাকা জেলার বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ মো. হেলাল চৌধুরী তার বক্তব্যে বলেন, বিচার ব্যবস্থার সাথে জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, কারা কর্তৃপক্ষ, বিজ্ঞ আইনজীবী মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর চিকিৎসকসহ আরো অনেক এজেন্সি ওতোপ্রত ভাবে জড়িত। সঠিক প্রসিকিউশন, যথার্থ তদন্ত ও বিচার প্রক্রিয়ায় সাক্ষ্য-প্রমান উপস্থাপনের মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের কোন একটিতে ক্রটি থাকলে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়না। দেওয়ানী মামলার প্রতিকার বহুলাংশে বিজ্ঞ আইনজীবীগনের সঠিক ও নির্ভুল প্লিডিংস, যথাসময়ে দলিলাদি প্রদর্শন ও আন্তরিকতার সাথে জড়িত। মামলার মাধ্যমে আদালতকে ব্যবহার করে হয়রানী ও জুলুম করার মানসিকতা থেকে দুবৃত্তদের ফেরাতে বিচারক, প্রসিকিউশন, বিজ্ঞ আইন জীবীদের সাহসী নির্লোভ ও সদা তৎপর থাকতে হবে।

বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও ঢাকার জেলা প্রশাসক আবুছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান , অদ্যকার এ জুডিসিয়াল কনফারেন্সকে অত্যন্ত ফলপ্রসু বলে আখ্যা দিয়ে তার বক্তব্যে বলেন , ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার প্রতিবন্ধকতা দূরীকরনে তার অফিস ও সহকর্মীরা সদা তৎপর ও পূর্ন সহযোগিতার মনোভাব পোষন করেন।

ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার মারুফ আহমেদ, নিয়মিত এ জাতীয় কনফারেন্স অনুষ্ঠানের আহ্বান জানিয়ে বলেন, অদ্যকার এ সম্মেলনে আলোচিত মাদক মামলার তদন্ত সংক্রান্ত ও তদন্ত কর্মকর্তা সাক্ষীর হাজিরাসহ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিতে আলোচিত সুপারিশমালা পরবর্তী সম্মেলনের আগেই সমাধান করবেন।

ঢাকা জেলায় কর্মরত বিচারকদের মতামতের ভিত্তিতে প্রস্তুতকৃত মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায় বিষয়ে গবেষনা লব্ধ একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ঢাকা জেলার লিগ্যাল এইড অফিসার ও সিনিয়র সহকারী জজ মো.আলমগীর হোসাইন। তার উপস্থাপন মতে ঢাকা জেলা  জজ আদালতে ২০১৯ সালে দেওয়ানী মামলার নিষ্পত্তির হার শত ভাগের উপরে।
বিচার বিভাগীয় এ সম্মেলনটি উপস্থাপনা করেন সিনিয়র সহকারী জজ আফরিন আহমেদ হ্যাপী।

You can share this post on
Facebook

0 Comments

© 2013 All Rights Reserved By সরজমিনবার্তা