ঢাবির গ্রন্থাগারে স্থাপিত হবে 'বঙ্গবন্ধু কর্ণার'

news-details
শিক্ষা

মোহাম্মদ মাকসুদুল হাসান ভূঁইয়া রাহুলঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ স্মরণ করে রাখতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি হল গ্রন্থাগার ও কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে 'বঙ্গবন্ধু কর্ণার' স্থাপন করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)। 

 

ডাকসু'র পক্ষে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন ডাকসু'র স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সাদ বিন কাদের চৌধুরী।

 

'বঙ্গবন্ধু কর্ণার' স্থাপনের বিষয়ে সরেজমিন বার্তাকে সাদ বিন কাদের বলেন, বাঙালি জাতিসত্ত্বার অস্তিত্বে যে দুটি শব্দ অমোচনীয় তা হলো বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ। ৪৭ থেকে বাংলাদেশকে জানতে হলে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধকে জানা আবশ্যিক। আমাদের ইতিহাস সংগ্রামের ইতিহাস। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর বাংলাদেশই একমাত্র দেশ যে দেশ সম্যকযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের রক্তে স্নাত হয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে। মূল্যবোধ সম্পন্ন বাংলাদেশী হয়ে উঠতে হলে ও যে স্বপ্নের বীজ জাতির জনক বপন করেছিলেন সেই স্বপ্নের বাস্তবায়ন ঘটাতে হলে আমাদের এই ইতিহাস জানা জরুরী।

 

তাই বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ স্মরণ করে রাখতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি হল গ্রন্থাগার ও কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে ডাকসু'র পক্ষ থেকে 'বঙ্গবন্ধু' কর্ণার স্থাপন করা হবে। 

 

তিনি আরো জানিয়েছেন, 'বঙ্গবন্ধু কর্ণার' এ কেবল বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের উপর লিখিত বই সমূহ স্থান পাবে। এর জন্য প্রয়োজনীয় বই ও শেলফ ডাকসু সরবরাহ করবে। 

 

আগামী ১ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধ দিবসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮ টি হল ও কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে একযোগে 'বঙ্গবন্ধু কর্ণার' উদ্বোধন করা হবে এবং যেসব হলে গ্রন্থাগার নেই সেসব হলে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলেছেন সাদ বিন কাদের।

 

'বঙ্গবন্ধু কর্ণার' স্থাপনের বিষয়ে সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি হল সংসদের ভিপি, জিএস, এজিএস ও পাঠকক্ষ সম্পাদকের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক আলোচনা করেছে ডাকসু।

 

You can share this post on
Facebook

0 Comments

© 2013 All Rights Reserved By সরজমিনবার্তা