পুঠিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারের পদ শূণ্য

news-details
বাংলাদেশ

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি :

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) পদটি শূণ্য রয়েছে। রহস্যজনক কারণে দীর্ঘদিন ধরে এ পদে কেউ যোগদান করছেন না। সর্বশেষ আবাসিক মেডিকেল অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ডাক্তার সিরাজুল ইসলাম।

গত ২০১৩   সালে পদন্নতি নিয়ে চলে গেছে। এরপর থেকে এ পদে আর কেউ যোগদান করেননি। ভারপ্রাপ্ত মেডিক্যাল অফিসার দিয়ে এ পদের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এতে স্বাস্থ্য কমপ্লক্সের স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। একজন মেডিকেল অফিসারকে সার্বক্ষণিক এ পদের দায়িত্ব পালন করতে হয়।

এ পর্যন্ত যে কয়জন আবাসিক মেডিকেল অফিসাররা এই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্ব পালন করেছেন তাদের মধ্যে বেশির ভাগ ডাক্তারই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোয়টারে থাকেন না। ফলে সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করার কথা থাকলে তারা তা করেন না। এছাড়াও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আউট ডোরের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পদটিও শূণ্য রয়েছে।

এতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন। প্রতিদিন গড়ে পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ শতাধিকের বেশি রোগী আউডোরে চিকিৎসা নিতে আসেন। এদের মধ্যে বেশির ভাগ রোগীই মেডিসিন ডাক্তারের রোগী বলে জানা গেছে।

এসব রোগীরা মেডিসিনের ডাক্তার না পেয়ে নিরুপায় হয়ে মেডিকেল অফিসার অথবা জরুরি বিভাগের ডাক্তারের কাছে ভিড় করছেন। অনেকেই  মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার না পেয়ে ঘুরে যাচ্ছেন। এ ব্যাপারের পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচও ডাক্তার নাজমা আক্তার জানান, বিষয়টি আমরা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। এছাড়ার এমপি মহোদয়কে জানানো হয়েছে। 

You can share this post on
Facebook

0 Comments

© 2013 All Rights Reserved By সরজমিনবার্তা