• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২০ , ফাল্গুন - ১৫ , ১৪২৬

বগুড়ার শেরপুরে আন্ত:জেলার ৭ ডাকাত গ্রেফতার

news-details
বাংলাদেশ

বগুড়া জেলা প্রতিনিধি :বগুড়ার শেরপুরে ভবানীপুর বাজারের পশ্চিম পাশে দলিল গ্রামে রাস্তার লোকজনকে আটকিয়ে ডাকাতি কার্যক্রম চালানোর সময় আন্ত:জেলার ৭ ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার ২ জানুয়ারী দুপুর ১২টায় প্রেস ব্রিফিংএ শেরপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ গাজিউর রহমান জানান,  দিবাগত রাত ২টায় ডাতাকির উদ্দেশ্যে ভবানীপুর বাজারের পশ্চিম পার্শে লিল গ্রামে রাস্তার লোকজনকে আটকিয়ে ডাকাতি কার্যক্রম চালায়। এতে সংবাদ পেয়ে শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ুন কবীর, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ বুলবুল ইসলাম, এসআই (নিঃ) পুতুল মোহন্ত, এএসআই (নিঃ) মোঃ মিলন হোসেন সহ কয়েক জন ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পৌছালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দলটি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৬ সস্যকে গ্রেফতার করে। এবং ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত ১টি লোহার তৈরী ধারালো ২১ ইঞ্চি লম্বা ছোরা, ২০ ইঞ্চি ও ২১ ইঞ্চি লম্বা ২টি হাসুয়া, ৩ টি বাঁশের লাঠি ও ৩০ হাত নাইলোনের রশি উদ্ধার করে।
এ সময় সঙ্গে থাকা আরো কয়েকজন ডাকাত পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত ডাকাত উল্লাপাড়া থানার (মির্জাপুর ভেংরী স্কুল পাড়া) ভেংরী গ্রামের বদিউজ্জামান বিদুর ছেলে মোঃ নজরুল ইসলাম বিশা (৪০), রায়গঞ্জ থানার কোদলা দিঘর গ্রামের মোঃ মহির উদ্দিন ছেলে সাহেদ আলী (৪২), দবরাজপুর মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেন ছেলে মোঃ আশরাফ আলী (৪২), নাটোর জেলা বাগাতিপাড়া থানার মারিয়া গ্রামের মৃত খোকা ঋষি ছেলে শ্রী মনি ঋষি মুচী (৫০), ধুনট থানার তারাকান্দি গ্রামের শহিদুল ইসলাম ছেলে মোঃ রাসেল (২১) ,ভারত জেলার ও থানার গঙ্গরামপুর পূর্নতলা (উলিপুর মজনু জুট মিলের পেছনে) এলাকার মৃত গনেশ চন্দ্র সরকার ছেলে শ্রী জয় চন্দ্র সরকার (১৯), শেরপুর থানার পানিসাড়া গ্রামের চাঁন মিয়া ছেলে মোঃ রুবেল (২০)।
পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, নওগাঁ, নাটোর ও রাজশাহীসহ আশপাশের জেলাগুলোতে গরু চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই করে এবং আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য বলে জানায়। পরবর্তীতে সকাল পৌনে ছয়টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাওয়া অপর ডাকাত মুনি মুচীকে সিরাজগঞ্জ রোড হতে গ্রেফতার করা হয়।
ডাকাত নজরুল ইসলাম বিশার বিরুদ্ধে বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা ও নাটোর জেলায় মোট ১০টি চুরি ও ডাকাতি মামলা রয়েছে। এছাড়া ডাকাত সাহেদ, আশরাফ, রাসেল ও মনি মুচীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় একাধিক চুরি ও ডাকাতির মামলা রয়েছে। উল্লেখ্য যে, গত ২৬ জুলাই দিবাগত রাতে শেরপুর থানার ভবানীপুর বাজারের পশ্চিম পার্শে প্রজনন ব্যবসায়ী শাজাহান হত্যা ও তার গরু ডাকাতির সাথে গ্রেফতারকৃত ডাকাতেরা সরাসরি জড়িত আছে বলে জানান।
শেরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবীর জনান, গ্রেফতারকৃতদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে এবং ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে।

You can share this post on
Facebook

0 Comments

© 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা