শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:১৭ অপরাহ্ন

স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণে স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবকে আশ্বাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯
  • ১১২ বার পঠিত

স্পেনের বার্সেলোনায় স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করার জন্য সিটি কর্পোরেশন স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবকে আশ্বাস প্রদান করেছে। ১৭ জুলাই স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাব বার্সেলোনা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ উপলক্ষে মতবিনিময় সভা করেছে।

সভায় সিটি কাউন্সিলর নাতালিয়া মারটিনেস রোদ্রিগেজ ও কাউন্সিলর জরদি রাবাসসাসহ সিটি কর্পোরেশনের অন্যান্য নেতারা এবং স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আফাজ জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন ও সভার সমন্বয়ক কামরুল মোহাম্মদসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সিটি কর্পোরেশনকে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য আনুষ্ঠানিক আবেদনপত্র পেশ করা হয়। গত দুই সপ্তাহ ধরে মহান একুশ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের ইতিহাসে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ সংশ্লিষ্টতা এবং বাংলাদেশে একুশ উদযাপনের জন্য শহীদ মিনারের গুরুত্ব বোঝানোর জন্য সমন্বয়ক কামরুল মোহাম্মদ ও স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাব বিভিন্ন নথিপত্র ও তথ্য উপাত্ত প্রস্তুত করেন।

এর মধ্যে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ছিল প্রবাসী সাংবাদিক মিরন নাজমুলের তৈরি করা বিশেষ ভিডিও চিত্র। ভিডিও চিত্রে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও প্রভাত ফেরী অনুষ্ঠানে প্রস্তুতিসহ একুশ সংক্রান্ত বিষয়ের সঙ্গে নেপথ্যে ছিল স্প্যানিশ ভাষায় গাওয়া ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গানটির প্রথম অন্তরা।

স্প্যানিশ ভাষায় একুশের গান শুনে সিটি কর্পোরেশনে কর্মকর্তারা একুশ সংক্রান্ত পুরো প্রেজেন্টেশনের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবকে ধন্যবাদ জানান।

পরে উপস্থিত সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তারা আশ্বাস দেন, শহরের সিউতাদ ভেইয়াতে সিটি কর্পোরেশন স্মৃতি সৌধ নির্মাণের জন্য পুনরায় অনুমতি দিলে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে। বার্সেলোনায় বাংলাদেশি কমিউনিটির ‘প্রাণের দাবি’ একটি স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশি কমিউনিটি বিভিন্নভাবে দাবি করে আসছিল।

কিন্তু বার্সেলোনা শহরের বাংলাদেশি অধ্যুষিত এই এলাকা সিউদাদ ভেইয়াতে আপাততঃ কোনো ধরনের সৌধ নির্মাণের অনুমতি না থাকায় এতদিন শহীদ মিনার প্রশ্নে সিটি কর্পোরেশন বিশেষ ইতিবাচক আশ্বাস দেয়নি। দাবির প্রেক্ষিতে শুধু প্লাসা পেদ্রোতে গত ২১ ফেব্রুয়ারির আগে একটি একুশের শহীদ মিনারের ছবি ও বাংলা লেখা সম্বলিত একটি স্থায়ী প্লাকা (সিল্ড) স্থাপন করে।

কর্মকর্তারা আরও জানান, সিউতাদ ভেইয়াতে ভবিষ্যতে কোনো প্রকার সৌধ নির্মাণের অনুমতি যদি নাও আসে তাহলে সিউতাদ ভেইয়ার বাইরে হলেও মহান ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার সম্মানে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে।

সিটি কর্পোরেশনের এই ঘোষণার মাধ্যমে বাংলাদেশি কমিউনিটি একান্ত দাবি এই স্থায়ী শহীদ মিনার বাস্তবায়িত হবার ক্ষেত্রে হতাশার মধ্যে আশার আলো সঞ্চারিত হলো বলে মনে করছেন বার্সেলোনায় বসবাসকারী বাংলাদেশিরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 sorejominbarta.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com