বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন

পাঁচদিন ধরে গাইবান্ধার সঙ্গে ঢাকার বাস চলাচল বন্ধ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯
  • ১১১ বার পঠিত

গাইবান্ধা থেকে ঢাকার সঙ্গে চলাচলকারী দূরপাল্লার চেয়ারকোচগুলো গত পাঁচদিন ধরে বন্ধ রয়েছে। ফলে এ জেলা থেকে ঢাকাগামী এবং ঢাকা থেকে গাইবান্ধাগামী যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এর আগে গত ৬ জুলাই থেকে পরিবহন শ্রমিক ও বহিরাগত পরিবহন মালিকদের দ্বন্দ্বের কারণে এ জেলা থেকে ৭টি পরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত মালিক ও শ্রমিক কর্তৃপক্ষের দ্বন্দ্ব নিরসন না হওয়ায় কবে নাগাদ চলাচল শুরু হবে তা এখনও অনিশ্চিত।

শ্রমিকরা জানায়, বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার কোচগুলো ছাড়ার সময় প্রতিদিন ১৮০ টাকার পরিবর্তে ২৬০ টাকা দাবি করা হয়। সেই সঙ্গে শ্রমিকরা মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধেরও দাবি জানায়। এ নিয়ে গাইবান্ধা জেলা পর্যায়ের মালিকদের সঙ্গে শ্রমিক সংগঠনের দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হলে গত ৬ জুলাই থেকে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, মোটর মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে বিষয়টি নিস্পত্তি হয়। ফলে একদিন পরেই গাইবান্ধা থেকে ঢাকার চেয়ারকোচ চলাচলের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় বলে জেলা মোটর মালিক সমিতি সূত্রে জানা গেছে। কিন্তু ঢাকা বাস-ট্রাক ওনার্স এসোসিয়েশনের সঙ্গে শ্রমিক সংগঠনের মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধ, বর্ধিত চাঁদা প্রদান, সড়কে যানবাহনের নিরাপত্তা বিধানসহ অন্যান্য বিষয়ে নিস্পত্তি না হওয়ায় তারা গাইবান্ধায় একটানা পাঁচদিন চেয়ারকোচগুলো চলাচল বন্ধ রেখেছে।

এদিকে ৭টি পরিবহন কোম্পানির প্রতিদিন গড়ে যেখানে ৪টি থেকে ৬টি পর্যন্ত চেয়ারকোচ গাইবান্ধা-ঢাকায় চলাচল করতো সেখানে একটানা পাঁচদিন যাবৎ বন্ধ থাকায় যাত্রীদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ফলে গাইবান্ধার সর্বস্তরের বাসযাত্রীদের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে গাইবান্ধা-ঢাকায় বন্ধ থাকা চেয়ারকোচ চলাচল অবিলম্বে চালু করার দাবি জানানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 sorejominbarta.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com