সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:৪৬ অপরাহ্ন

স্ত্রীকে গলা কেটে খুন করল স্বামী

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৯
  • ২২ বার পঠিত

নারায়ণগঞ্জে সাহেলা আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা করেছে স্বামী মোবারক হোসেন (৩৫)। ঘটনার পর থেকে পলাতক আছেন তিনি।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) দিবাগত মধ্য রাতে আড়াইহাজার উপজেলার গোপালদী পৌরসভার উত্তর কলাগাছিয়া এলাকায় এই খুনের ঘটনা ঘটে। সাহেলা ওই এলাকার হাসেম আলীর মেয়ে। খবর পেয়ে বুধবার সকালে গোপালদী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১৫ বছর আগে নরসিংদীর মাধবদী থানার খাদিমার চর এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে মোবারক হোসেন সাহেলাকে বিয়ে করেন। এর কিছুদিন পর স্ত্রীকে নিয়ে তিনি শ্বশুর বাড়িতে বসবাস এবং স্থানীয় পাওয়ার লুম ফ্যাক্টরিতে কাজ শুরু করেন। চাকরি ছেড়ে ব্যবসা করবে এমন কথা বলে স্ত্রীকে মোটা অংকের টাকার জন্য চাপ দেয় মোবারক। এজন্য প্রায়ই সে স্ত্রীকে মারধর করতো। এক পর্যায়ে মঙ্গলবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় নিজ শয়ন কক্ষের বিছানায় ঘুমন্ত সাহেলাকে গলা কেটে হত্যা করে মোবারক। এরপরথেকে পলাতক আছেন তিনি। পরে মেয়ের গলা কাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে সালেহার বাবা স্থানীয় লোকজন ও পুলিশকে সংবাদ দেন।

নিহতের বোন পারভীন আক্তার জানান, বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ-বিবাদ চলছিল। বিভিন্ন সময় সালেহাকে মারধর করতো মোবারক। সেই সঙ্গে প্রায়ই সে সালেহাকে হত্যার হুমকি দিত।

গোপালদী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই নাসির আহমেদ জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে সাহেলাকে খুন করে পালিয়ে গেছে তার স্বামী মোবারক। খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘাতক স্বামী মোবারককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 sorejominbarta.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com