সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:১৫ অপরাহ্ন

রাতে একসঙ্গে ঘুমিয়ে সহকর্মীকে খুন করল যুবক

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৩৭ বার পঠিত

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় পারভেজ ওরফে মজিবুর রহমান (১৮) নামে এক মোটরসাইকেল মিস্ত্রিকে জবাই করে হত্যা করে পালিয়েছে সুমন (২০) নামে তার সহকর্মী। সোমবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময়ে তাকে হত্যা করে দোকানের ভেতর মরদেহ ফেলে তালা মেরে পালিয়ে যায় সুমন।

পরে সকালে খবর পেয়ে পুলিশ পারভেজের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসাপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার পুরিন্দার সাতগ্রাম এলাকার জুয়েলের মোটরসাইকেল গ্যারেজ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত পারভেজের বাড়ি কিশোরগঞ্জের বৈড়াদীর মাইজবাগ এলাকায়। বাবার নাম তারা মিয়া। তিনি আড়াইহাজার উপজেলার পুরিন্দার সাতগ্রামের জুয়েলের মোটরসাইকেলের গ্যারেজে কাজ করতেন।

মালিক জুয়েল জানান, তার দোকানে পারভেজ ও সুমন নামে দুই মিস্ত্রি কাজ করতেন। রাতে তারা দোকানেই ঘুমাতেন। প্রতিদিনের ন্যায় সোমবার রাতেও তাদেরকে দোকানে রেখে বাড়িতে আসি। আজ (মঙ্গলবার) সকালে এসে দেখি দোকান তালাবদ্ধ। পরে দুইজনের মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে বাড়িতে চাবি আনতে যাই। চাবি এনে দোকান খুলে দেখি ভেতরে পারভেজের মরদেহ পড়ে আছে। আর সুমন পলাতক। তাই ধারণা করছি পারভেজকে সুমনই খুন করেছে।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, একটি মোটরসাইকেলের মেরামতের দোকানে দুই কর্মচারী রাতে দোকানে ঘুমাত। বুধবার দিবাগত রাতে তাদের একজন অপর জনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে হত্যা করে লাশ ফেলে দোকানে তালা মেরে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকারীকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে পারভেজকে কয়জন মিলে খুন করেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 sorejominbarta.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com