‘মামলাজট নিরসনে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার’

‘মামলাজট নিরসনে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার’

আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘মামলা জট নিরসনে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। শিগগিরই আরো একটি পদ্ধতি চালু করতে হবে, আর সেটা হচ্ছে জাস্টিস অডিট।’

আজ মঙ্গলবার আইন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে শিশু সংগঠন ন্যাশনাল চিলড্রেনস টাস্কফোর্সে (এনসিটিএফ) অ্যাডভোকেসি ফোরাম চাইল্ড পার্লামেন্টের ১২ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকে আইনমন্ত্রী এ কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘এই জাস্টিস অডিট পদ্ধতিতে আমরা ঘরে বসেই মামলার ধরন ও অবস্থা সম্পর্কে জানতে এবং মামলার অবস্থা অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পারব। এই জাস্টিস অডিট পদ্ধতি চালু করলে মামলা জট নিরসনে অনেক অগ্রগতি হবে।’

এ সময় মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক, যুগ্ম সচিব হাবিবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আনিসুল হক বলেন, ‘শিশু অপরাধ সম্পর্কিত মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে সরকার যথেষ্ট গুরুত্ব সহকারে কাজ করে যাচ্ছে। এ মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য সারা দেশের সরকারি আইনজীবীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার ফলে শিশু রাজন হত্যা মামলাসহ বেশ কয়েকটি হত্যা মামলার বিচার অতি দ্রুত সম্পন্ন হয়েছে। মামলার দীর্ঘসূত্রিতা দূর করার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে।’

আইন মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চাই বিচারকার্যে যাতে বিলম্ব না হয়। কারণ বিচার বিলম্বিত হওয়ায় শুধু যে বিচারপ্রার্থী জনগণ ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন তা নয়।’

মন্ত্রী বলেন, ‘শিশু রাজন হত্যা মামলা, রাকিব হত্যা মামলাসহ বেশ কয়েকটি হত্যা মামলার দ্রুত বিচার করায় বর্তমানে শিশু নির্যাতন কমেছে। সরকার শিশু নির্যাতন কমানোর বিষয়ে সবসময় সচেষ্ট থাকবে।’

আনিসুল হক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারই প্রথম গৃহ নির্যাতন আইন প্রণয়ন করছে। স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের নির্যাতন বন্ধে নীতিমালা করেছে। আমরা মনেকরি, শিশুরা হচ্ছে দেশের ভবিষ্যৎ। সেই ক্ষেত্রে তারা ঠিকভাবে গড়ে উঠুক এটা আমাদের চিন্তা ভাবনার মধ্যে রয়েছে।’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘জাতিসংঘ কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার আগেই ১৯৭৪ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শিশু আইন প্রণয়ন করেছিলেন। সেই শিশু আইনই কিন্তু আজকের শিশু আইনের ভিত্তি। যদিও আজ তা বিস্তার লাভ করেছে। শিশু আইন প্রণয়নের সময় শিশু আদালত নিয়ে কিছু সমস্যা তৈরি হয়েছিল। সেগুলো দূরকরার চেষ্টা করা হচ্ছে। সংশোধিত শিশু আইন এখন জাতীয় সংসদে আছে এবং এটি যেকোনো দিন পাস হতে পারে।’

Comments are closed.

More News...

Fatal error: Call to undefined function tie_post_class() in /var/sites/s/sorejominbarta.com/public_html/wp-content/themes/bdsangbad_magazine_themes/includes/more-news.php on line 40