মুরাদনগরে পাবলিকের হাতে ভূয়া মধু বিক্রেতা আটক

মুরাদনগরে পাবলিকের হাতে  ভূয়া মধু বিক্রেতা আটক

হাফেজ নজরুল :
মুরাদনগর উপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকার জায়েদ আলী মার্কেটের সামনে পরিবার পরিজন নিয়ে থাকে ভ’য়া মধু বিক্রেতা মৃত মালু মিয়ার ছেলে লালু মিয়া। প্রতিদিন ভ’য়া বানানো মধু বিক্রি করতে ছুটে চলেন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। এমনি ভাবে ভূয়া মধু বিক্রি করতে এসে আটক হন কোম্পানীগঞ্জ বাজারে একঝাক ক্রেতার হাতে।
ডেকে ডেকে বিক্রি করেন মধু এক নাম্বার খাঁটি মধু , এই মামা মধু লন ! এই মাত্র বাসা থেকে নামিয়ে আনছি মধু। হাতে বালতি সাথে মধু ভরা বোতল, বালতির এক পাশে আগুনে পুড়ানো বেনা ও বগা কাঁচি নিয়ে ঘুরে বেড়ান ,দেখলে মনে হয় এই বুঝি বাসা ভেঙ্গে মধু নিয়ে আসল তার উপড় রয়েছে মধু বিক্রির মন ভোলানো মিষ্টি কথা । হাতের তালুতে মধু দিয়ে বলেন, একটু মুখে দিন এক নাম্বার খাঁটি বাসা ভাঙ্গা মধু ,যদি মিথ্যে বলে থাকি মরলে নবীর সাফায়াত পাবনা। ভাল জিনিস টাকা কম দিয়েন না একদাম ৮ শত টাকা কেজি । খারাপ হলে আজ রাতের মধ্যে আমার ছেলে মেয়ে গুলো মরে যাবে। আজ মিথ্যে বলে বিক্রি করলে আরেক দিন ধরা খেলে আপনারা এই কাচিঁ দিয়ে আমার জিব কেঁটে দিয়েন। এমন সব ধর্মের দোহাই সন্তানের কসম কেটে বানানো মধু বক্রি করে লালু মিয়া। শুক্রবার বিকেলে লালু মিয়া মধু বিক্রি করতে এসে কোম্পানীগঞ্জ বাজারের ব্যাবসায়ী মামুন মোল্লার হাতে প্রথমে আটক হন । তাকে আটক করার পর মধু কিনে প্রতারিত অন্যান্য ব্যাবসায়ীরা ও ছুটে আসে। তারা সকলে তাদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন। মামুন মোল্লা বলেন, আমি দুই মাস পূর্বে তার কাছ থেকে ১৬শ টাকার মধু ক্রয় করে বাসায় নেই । ঐ মধু আমার বাঁচ্চাকে খাওয়ানোর পর সে অসুস্থ হয়ে পড়ে তার পর আমি মধু গুলো ফেলে দেই। সে পুনরায় আমার কাছে মধু বিক্রির জন্য আসলে আমি তাকে আটক করি। বানানো মধু বিক্রির দায়ে আইনের হাতে তুলে দিব বলে ধমকি দিলে সে তার অপরাধের কথা স্বীকার করে বলে, বাবারে আমায় ছেড়ে দাও। আমি আর এমন কাজ করিব না। তখন শত শত লোকের সামনে তার কৃত কর্মের জন্য তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেন। জীবনে আর এই ব্যাবসা করবেনা বলে কানে ধরে প্রতিশ্রæতি দেন। প্রতারক মধু বিক্রেতা লালু উপস্থিত সর্বসাধারনকে বলেন, এই এলাকায় আরো মধু বিক্রেতা আছে তারা ও আমার মত পাউডার , ফিটকারী ও চিনি দিয়ে ভ’য়া মধু বিক্রি করে। মধু বিক্রেতা লালু বয়সবৃদ্ধ হওয়ায় তার শারিরিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে উপস্থিত পাবলিক তাকে ছেড়ে দেন।

Comments are closed.

More News...

Fatal error: Call to undefined function tie_post_class() in /var/sites/s/sorejominbarta.com/public_html/wp-content/themes/bdsangbad_magazine_themes/includes/more-news.php on line 40