সিংগাইরে প্রেমে বাধা দেয়ায় মিথ্যা মামলা

সিংগাইরে প্রেমে বাধা দেয়ায় মিথ্যা মামলা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ সিংগাইরে প্রেমের নামে অবাধ মেলামেশা করতে নিষেধ ও শাষন করতে গিয়ে চাচাসহ এলাকার তিনজন পড়েছেন বিপাকে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যে মামলা দায়ের করেছেন প্রেমিকা ভাতিজি (২০)-এর কথিত এক ফুপু (৩৬)। এ ঘটনাটি ঘটেছে সিংগাইর উপজেলার কানাইনগর গ্রামে। মামলার বাদি ঐ এলাকার এক প্রবাসির স্ত্রী। প্রেমিকা মেয়েটি তার ঐ ফুপুর বাড়িতেই থাকত।

জানা গেছে, গত ১৪ জুন পার্শ্ববর্তী এলাকা বেগুনটিউরি গ্রাম থেকে কথিত প্রেমিক শফিকুল তার বন্ধু শাকিলকে নিয়ে রাত ১০ টা ৩০ মিনিটের দিকে মুঠোফোনে প্রেম হবার পর দেখা করতে প্রেমিকার বাড়িতে উঠে। ঐ দিন চলতি বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রথম খেলা দেখা নিয়ে এলাকার যুবকরসহ ফুটবল প্রেমিরা ছিলেন সরগরম। প্রেমিকার বাড়িতে ঢুকতেই কয়েকজন টের পেলে বিষয়টি জানাজানি হলে পরোক্ষণেই একে একে এলাকার অনেকেই উপস্থিত হয় ঐ বাড়িতে। চাচা ইউনুছ গাজি, ইউনুছ বিশ্বাস ও কলেজ পড়–য়া যুবক রাসেলসহ বহু লোকজন ছেলে দুটিকে ঘরের মধ্যেইে দেখতে পান। অতপর লেগে যায় হট্টগোল, ছেলে দুটিকে চর-থাপ্পর মারলে বাড়ির মালিক প্রেমিকার ফুপু সামনে এসে বাঁধা দিলে জনতার রোসে তিনিও লান্সিত হন। খবর পেয়ে মূহুর্তের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌছে যায় থানা পুলিশ ও স্থানীয় জন প্রতিনিধি। অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়ানোর জন্য পুলিশ ও মেম্বারের উপস্থিতিতে বিষয়টি প্রাথমিকভাবে মিমাংসিত হয়। পরে নিকটস্থ থানায় ইউনুছ গাজি, রাসেল ও ইউনুছ বিশ্বাসকে অভিযুক্ত করে মিথ্যে সাজানো মামলা দায়ের করেন ঐ বাড়ির মালিক প্রবাসির স্ত্রী। মামলায় ঘটে যাওয়া সমস্ত বিবরণ উল্লেখ না করে অভিযোগে সম্পূর্ণ বানোয়াট ও মিথ্যে এজাহার লিপিবদ্ধ করেন ঐ নারী। এখনও পরিবার-পরিজন রেখে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন আসামীরা সবাই। মামলার প্রধান আসামী ইউনুছ গাজি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, যে ভাতিজিকে এর আগে এলাকায় সাহায্য কুড়িয়ে বিয়ের খরচ যোগাড় করেছি, আজ তার মঙ্গল করতে এসে মিথ্যে মামলায় আসামি হলাম।

স্থানীয় মেম্বার মহিদুর রহমান বলেন, প্রেমের টানে দেখা করতে এসে প্রেমিকসহ আরেকটি ছেলে এলাকার জন রোসে পড়েন। আর এত রাতে নিজ বাড়িতে আশ্রয় দেয়ায় বাড়ির মালিক প্রবাসির স্ত্রীকেও গালমন্দসহ লান্সিত করেন এলকাবাসি। পরে পুলিশ ও আমি নিজে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে চলে আসি। পরে শুনি ঐ প্রবাসির স্ত্রী এলাকার তিন জনের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিংগাইর থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই ) ফরহাদ হোসেন বলেন, বিষয়টি তদান্তধীণ আছে, তদন্ত শেষে চুড়ান্ত প্রতিবেদন তৈরী করা হবে।

Comments are closed.

More News...

Fatal error: Call to undefined function tie_post_class() in /var/sites/s/sorejominbarta.com/public_html/wp-content/themes/bdsangbad_magazine_themes/includes/more-news.php on line 40