দ্বিতীয় রাউন্ডে পা রাখতে মরিয়া ইংল্যান্ড

দ্বিতীয় রাউন্ডে পা রাখতে মরিয়া ইংল্যান্ড

গ্রুপ-জি’তে নিজেদের শেষ ম্যাচে কালিনিনগ্রাদে আজ একে অপরের মুখোমুখি হচ্ছে দুই শীর্ষ দল ‘বাজির ঘোড়া’ বেলজিয়াম ও ইংল্যান্ড। এ পর্যন্ত ধরে রাখা জয়ের ধারাবাহিকতা শেষ ম্যাচেও শক্তিশালী বেলজিয়ামের বিপক্ষে ধরে রাখতে চায় গ্যারেথ সাউথগেটের ইন-ফর্ম ইংল্যান্ড। এর মাধ্যমে গ্রুপের শীর্ষ স্থানটাও যে নিশ্চিত হবে।

তিউনিশিয়া ও পানামাকে বিদায় দিয়ে দুই দল ইতোমধ্যেই নক আউট পর্ব নিশ্চিত করেছে। প্রথম দুই ম্যাচে তাদের জয়টাও ছিল বেশ দাপুটে। তিউনিশিয়া ও পানামার বিপক্ষে জয়ে থ্রি লায়ন্স ও রেড ডেভিলসের পূর্ণ ছয় পয়েন্টও অর্জিত হয়েছে।

বিস্ময়করভাবে দুই দলই ৮টি করে গোল দিয়েছে ও দুটি করে হজম করেছে, যে কারনে গোল ব্যবধানেও দল দুটি একই অবস্থানে আছে। এর অর্থ হচ্ছে কালকের ম্যাচে ড্র হলে ফেয়ার প্লে রেকর্ড দেখে গ্রুপ বিজয়ী নির্ধারিত হবে। এক্ষেত্রে বেলজিয়ামের থেকে ইংল্যান্ড একটি হলদু কার্ড বেশী পেয়েছে।

এফ-গ্রুপে প্রথম ম্যাচে মেক্সিকোর কাছে পরাজিত হয় হতাশ করেছে জার্মানী। আর সে কারনেই খুব সম্ভবত গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবেই তারা পরের রাউন্ডে যাবে। এই গ্রুপ থেকে সামনে যে এগিয়ে যাবে নক আউট পর্বে পরের দিকে তাদের দিকে ব্রাজিল বনাম জার্মানীর মধ্যে যেকোন একটি দলের মোকাবেলা করতে হবে। যদিও এসব বিষয়টি নিয়ে মোটেই চিন্তিত নন ইংলিশ গোলরক্ষ জর্ডান পিকফোর্ড।

তিনি বলেন, এসবই ধারণা। আর আমরা প্রতিটি মুহূর্ত নিজেদের ম্যাচের ওপর গুরুত্ব দিতে চাই। আমাদের মানসিকতাই হলো প্রতিটি ম্যাচে জয় তুলে নেয়া। আমরা শুধুমাত্র জয়ের ধারা বজায় রাখতে চাই। আর এভাবেই সামনে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব। এটা কোন ব্যপার নয় যে পরের রাউন্ডে আমরা কার মোকাবেলা করবো। ফাইনাল পর্যন্ত যেতে হলে বড় দলগুলোকে টপকেই যেতে হবে।

আজকের ম্যাচকে সামনে রেখে দুই দলেই পরিবর্তনের আভাষ পাওয়া গেছে। বেলজিয়ামের গোল্ডেন বুট প্রতিদ্বন্দ্বী রোমেলু লুকাকু মঙ্গলবার অনুশীলনে ছিলেন না।

বেলজিয়ামের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও সাবেক এভারটন মিডফিল্ডার মারোনে ফেলাইনি বলেছেন, দীর্ঘদিন আমি প্রিমিয়ার লীগে খেলেছি এবং সেখানকার খেলোয়াড়দের আমি বেশ ভালভবেই চিনি। আমি মনে করি কাল একটা চমৎকার ম্যাচ হবে। ভিনসেন্ট কোম্পানী ও আমার পরে বেলজিয়ামের অনেক খেলোয়াড়ই সেখানে গিয়ে ভাল করেছে। আমি মনে করি বিষয়টা গৌরবের।

হাঁটুর ইনজুরির কারণে এবারের আসরে এ পর্যন্ত মূল একাদশে খেলার সুযোগ না পেলেও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফরোয়ার্ড মার্কোস রাশফোর্ড এই ম্যাচে ফিরতে পারেন। বিশেষ করে রাহিম স্টার্লিয়ের ব্যর্থতা রাশফোর্ডের দরজা খুলে দিতে পারে।

বিশ্বকাপে এই নিয়ে তৃতীয়বার এই দুটি দল একে অপরের মুখোমুখি হচ্ছে। এ পর্যন্ত ইংল্যান্ড অপরাজিত আছে। ১৯৫৪ সালে ৪-৪ গোলে ড্র হবার পরে ১৯৯০ সালে দ্বিতীয় রাউন্ডে থ্রি লায়ন্সরা ১-০ গোলে জয়ী হয়েছিল। এর আগের ২১ বারের মোকাবেলায় বেলজিয়াম মাত্র একবারই ইংল্যান্ডকে পরাজিত করেছিল। ১৯৩৬ সালের ম্যাচটিতে বেলজিয়াম ৩-২ গোলে জয়ী হয়েছিল।

Comments are closed.

More News...

Fatal error: Call to undefined function tie_post_class() in /var/sites/s/sorejominbarta.com/public_html/wp-content/themes/bdsangbad_magazine_themes/includes/more-news.php on line 40