দক্ষ প্রার্থী আওয়ামী লীগে আছে, বিএনপিতে নেই : নাসিম

দক্ষ প্রার্থী আওয়ামী লীগে আছে, বিএনপিতে নেই : নাসিম

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, নির্বাচন হচ্ছে একটি যুদ্ধের মতো। যুদ্ধে জয়ী হওয়ার জন্য দক্ষ প্রার্থী, সাহসী কর্মী আওয়ামী লীগের মধ্যে রয়েছে। কিন্তু বিএনপিতে তা নেই।

আজ বুধবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বাংলাদেশ হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমেরিকার নির্বাচনসহ বিশ্বের অনেক দেশের নির্বাচনও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। বর্তমানে বিএনপিতে দক্ষ কোনো প্রার্থী, সাহসী কর্মী কিংবা সমর্থক নেই। তাই তারা যেকোনো নির্বাচনকেই মিথ্যা অপবাদ দিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ করছে। তারা মাঠে নেই, নির্বাচনে নেই। তারা শুধু সংবাদ সম্মেলনের মধ্যে আছে। বিএনপি মূলত প্রেস ব্রিফিংয়ে চ্যাম্পিয়ন।

হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রদূত ওয়ালিউর রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্ঠা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, তৃণমূল বিএনপির চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার নাজমুল হুদা, সংসদ সদস্য শিরিন আখতার প্রমুখ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘গাজীপুর সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। কিছু অসঙ্গতি থাকতেই পারে। নির্বাচনে ছোটখাট ত্রুটি থাকেই। সার্বিকভাবে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠ হয়েছে। বিএনপি নির্বাচনে পরাজয় হলেই নির্বাচন সুষ্ঠ হয়নি, নির্বাচন বাতিলের দাবি জানায়, এটা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর এই সদস্য আরও  বলেন, ‘নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বলতে কিছু নেই। আওয়ামী লীগ কখনও যুদ্ধাপরাধী, যুদ্ধাপরাধীদের লালন পালনকারী, আগুন সন্ত্রাসী বিএনপির সঙ্গে নির্বাচন বিষয়ক সংলাপ করবে না। বিএনপি আগামী জাতীয় নির্বাচনে আসলে, অভিনন্দন জানাব কিন্তু জোর করে নির্বাচনে নিয়ে আসবো না।’

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার নয়, বর্তমান সরকারের অধিনেই নির্বাচন হবে। সামনে বিএনপির সুযোগ, এ সুযোগটি হচ্ছে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা। নির্বাচন একটি রাজনৈতিক দলকে শক্তিশালী করে। প্রার্থী, কর্মী, সমর্থকদের চাঙ্গা করে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে না আসলে তাদের অস্থিত্ব আর থাকবে না। আমরা সংবিধান অনুযায়ী ৫ বছর ক্ষমতায় থেকে দেশ চালাচ্ছি। বিএনপি অতীতে ১ মাসও টিকতে পারেনি। তারা সংগ্রাম, রাজনৈতিক কর্মসূচি ভূলে গেলে। তারা যখন ক্ষমতায় ছিল তখন লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড কোথায় ছিল। ২১টি বছর তারা আমাদের যে নির্যাতন, নিপীড়ন করছে তা বলে শেষ করা যাবে না।’

তৃণমূল বিএনপি’র চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার নাজমুল হুদা বলেন, ‘বিএনপি যুদ্ধাপরাধীদের সঙ্গে বসবাস করছে। যারা বাংলাদেশ চায়নি, বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চাচ্ছে, তাদের সঙ্গে রয়েছে বিএনপি। তাই, তাদের সঙ্গ ত্যাগ করেছি। তবে, বিএনপির জন্য মায়া হয়। বিএনপিও দেশের জন্য অনেক কাজ করেছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশ উন্নয়নে যে ভূমিকা রাখতে তিনি নিশ্চিত আগামীতেও প্রধানমন্ত্রী হবেন। দেশের মানুষের হৃদয় জয় করেছেন তিনি, তার কোনো ভয় নেই। নির্বাচন করার জন্য কোনো দলের সঙ্গে সংলাপের প্রয়োজন নেই।’

23Shares

Comments are closed.

More News...

Fatal error: Call to undefined function tie_post_class() in /var/sites/s/sorejominbarta.com/public_html/wp-content/themes/bdsangbad_magazine_themes/includes/more-news.php on line 40