গড় আয়ু বেড়ে দাঁড়াল ৭১ বছর আট মাস

গড় আয়ু বেড়ে দাঁড়াল ৭১ বছর আট মাস
নিজস্ব প্রতিবেদক :

স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেন, ‘মাতৃমৃত্যু হার ও শিশুমৃত্যু হার কমে আসায় এবং স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হওয়ায় দেশের মানুষের গড় আয়ু বেড়ে ৭১ দশমিক ৮ বছর। ২০০০ সালে এই গড় আয়ু ছিল ৬৫ দশমিক ৫ বছর।’

আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান প্রতিমন্ত্রী। ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস’ উপলক্ষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, চলতি বছর ১০ হাজার চিকিৎসক, পাঁচ হাজার নার্স ও ৪০ হাজার স্বাস্থকর্মী নিয়োগ দেবে সরকার।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা মনিটরিং জোরদার করা হয়েছে। মানুষের আয় ও ক্রয়ক্ষমতা বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসা ব্যয়ও বেড়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সরকারের কাজ সুস্থ জাতি গড়ে তোলা। সুস্থ দেশ গঠনে সুস্থ জাতি গঠন অপরিহার্য। স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা আইন চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়নের জন্য চিকিৎসকদের গ্রামে থেকে চিকিৎসা প্রদানের ক্ষেত্রে সরকার কাজ করছে। চিকিৎসকরা যাতে গ্রামে উপস্থিত থাকেন, সেটা নিয়েও সরকার জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

এ সময় জাহিদ মালেক বলেন, মানুষের আয়ুষ্কাল বাড়ার ফলে বার্ধক্যে পৌঁছানো মানুষের সংখ্যা বেড়েছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে জটিল রোগের বোঝা। ক্যানসার, হৃদরোগ, কিডনির রোগ, ডায়াবেটিসসহ জটিল রোগেও আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এতে করে দীর্ঘমেয়াদি ও ব্যয়বহুল চিকিৎসার চাহিদা বাড়ছে। সরকার এই চাহিদা পূরণে কাজ করছে।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দুই সচিব সিরাজুল হক খান ও ফয়েজ আহম্মদসহ মন্ত্রণালয়ের অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a reply

Minimum length: 20 characters ::

More News...

Fatal error: Call to undefined function tie_post_class() in /var/sites/s/sorejominbarta.com/public_html/wp-content/themes/bdsangbad_magazine_themes/includes/more-news.php on line 40